দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায় নিত্যদিনই কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী আক্রমণ করে থাকেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। এটা নতুন কিছু নয়। তেমনই বৃহস্পতিবারও রাহুল গান্ধী হিন্দিতে টুইট করেন। সেখানে তিনি বলেন,'ভ্যাকসিন, অক্সিজেন ও ওষুধের মতই নিখোঁজ হয়ে গেছেন প্রধাননন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।' একই সঙ্গে রাহুল গান্ধী প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প সেন্ট্রাল ভিস্তা নিয়েও খোঁটা দিতে ভুলে যাননি। টুইটেই তিনি বলেছেন বাজ রয়েছে শুধু সেন্ট্রাল ভিস্তা, ওষুধের ওপর জিএসটি ও তাঁর ছবি। এদিন হিন্দিতে টুইট করেন রাহুল গান্ধী। 

দেশে নিত্যদিনই বাড়ছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ।পাল্লা দিয়ে বাড়ছে অক্সিজেন ওষুধ ও ভ্যাকসিনের চাহিদা। কিন্তু প্রায় প্রতিটি রাজ্যেই করোনা চিকিৎসার প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম অমিল হওয়ায় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী প্রায় নিত্য দিনও বৈঠক করছেন ও অবস্থার পর্যালোচনা করছেন। কিন্তু তারপরেও হাল ফেরায় বিরোধীরা কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সমালোচনায় সরব হয়েছে। 

গতকালই দেশের কোভিড পরিস্থিতি মোকাবিলায় পরামর্শ দিয়ে বিরোধী রাজনৈতিকদলগুলি প্রধামন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখিছিল। সেখানেও ছিল সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্প। অবিলম্বে প্রকল্পের কাজ বন্ধ করে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় অর্থ বরাদ্দ বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি। যদিও বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব আগেই জানিয়েছে সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্প দীর্ঘ মেয়াদী। করোনামহামারির আগেই এই প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। কিন্তু তারপরেই বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি এই মহামারিকালে সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্পের কাজ চালিয়ে যাওয়ায় সমালোচনায় সরব হয়েছে। 


স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী বৃহস্পতিবার দেশে দৈনিক সংক্রমণের পরিসংখ্যান ৩ লক্ষ ৬২ হাজার ৭২৭। মৃত্যু হয়েছে আড়াই হাজারেরও বেশি মানুষের। দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ছাড়িয়ে গেছে। এখনও পর্যন্ত ভারত করোনা বিশ্বে আক্রান্তের ক্রম তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে প্রথম স্থানে রয়েছে আমেরিকা। তবে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় তরঙ্গ এই দেশে প্রবলভাবে আছড়ে পড়ে আক্রান্তের সংখ্যা আরও বাড়বে বলেও মনে করেছেন বিশেষজ্ঞরা। পরিস্থিতি সামাল দিতে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির মতই বিশেষজ্ঞরাও দ্রুততার সঙ্গে টিকা দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।