কোভিডে ফের মৃত্যু বাড়ল রাজ্যে। তাই সংক্রমণ রুখতে বড় উদ্য়োগ জেলায়-জেলায়।  কোভিড মোকাবিলায় বারাসাত জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে চালু হল কোভিড হেল্প লাইন নম্বর। বারাসাত জেলা পুলিশ সুপার দপ্তরে সাংবাদিক সম্মেলন করে জানালেন পুলিশ সুপার রাজনারায়ণ মুখোপাধ্যায়।  

আরও পড়ুন, 'লকডাউন বিধি ভাঙবেন না', নারদকাণ্ডে বিক্ষোভ ইস্যুতে টুইট তৃণমূলের যুবরাজের 

 

 

 সোমবার সকালে বারাসাত জেলা পুলিশ সুপার দপ্তরে বারাসাত জেলা পুলিশ অন্তর্গত এলাকায় শুধুমাত্র কোভিড পরিস্থিতির মোকাবিলায় 'সহায়' নামক এক পরিষেবার সূচনা করার কথা জানালেন পুলিশ সুপার। হেল্পলাইন নাম্বার ৯১৬৩৭ ৬৬৬৯৪ এবং ০৩৩-২৫২৪০০১২  দুটিতে ফোন করলে কোভিড সংক্রান্ত সমস্ত বিষয়ে  সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া হবে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে অর্থাৎ  করোনা ভ্যাকসিন থেকে শুরু করে করোনায় মৃত ব্যক্তিদের সৎকার পর্যন্ত সমস্ত রকম সহযোগিতা করা হবে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে বলে জানালেন পুলিশ সুপার। পাশাপাশি শুধু উত্তর ২৪ পরগণা জেলার বারাসাত নয়, কোভিড রুখতে বড়ো উদ্য়োগ রায়গঞ্জেও। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় সরকারি পরিবহন কর্মীদের কোভিড যোদ্ধা হিসেবে ঘোষনার পরই সোমবার রায়গঞ্জে সরকারি পরিবহণ কর্মীদের কোভিড ভ্যাক্সিনেশন দেওয়ার কাজ শুরু করল উত্তর দিনাজপুর জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর।  উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন নিগমের রায়গঞ্জ ডিপোতে এই কোভিড ভ্যাক্সিনেশন কর্মসূচী শুরু করা হয়। সরকারি পরিবহন কর্মীদের কোভিড টীকাকরণ কর্মসূচি শুরু করায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানিয়েছে তৃনমূল শ্রমিক সংগঠন আইএনটিটিইউসি। 

আরও পড়ুন, কোভিডে সংক্রমণ কমল কলকাতায়, রাজ্যে একদিনে মৃত ১৪৭  

 

 

 প্রসঙ্গত,  কোভিডে ফের মৃত্যু বাড়ল রাজ্যে।  রবিবারের স্বাস্থ্য ভবনের করোনা বুলেটিন অনুযায়ী,রাজ্যে একদিনে মৃত  ১৪৭ জন   এবং এর মধ্যে কলকাতায় একদিনে মৃত্যু সংখ্যা ৩৩ জন। কলকাতায় মোট মৃতের সংখ্যা  ৩,৯২৯।  উত্তর ২৪ পরগণায় মৃত্যু হয়েছে ৩৯ জনের।একদিনে কলকাতায় করোনার নতুন ঢেউয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৯৫১ জন থেকে সামান্য কমে ৩৪৫১ জন এবং কলকাতায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা  ২৫৪,০৭৪ জন। রাজ্যে এই মুহূর্তে মোট আক্রান্ত ১১৩৩, ৪৩০ জন। তাই সবদিক থেকে সতর্ক জেলা প্রশাসনও।