সোমাবার থেকেই রাজ্য়ে শুরু হয়েছে লকডাউন। সরকারের তরফে বারবার ঘোষণা করা হয়ে জরুরী পরিষেবা ছাড়া আর কোনও কিছুর অছিলায় বাইরে বেরোলেই পুলিশ কড়া ব্য়বস্থা নেবে। ইতিমধ্য়েই শহরে লকডাউনের আইন লঙ্ঘন করার জন্য় ২০০০ জনকে গ্রেফতার করেছে। আর এবার তারই মধ্য়ে লকডাউন উপেক্ষা করে ব্যবসা চালানোর চেষ্টা করায় বেশ কয়েকটি পানশালা ও মদের দোকানের মালিককে গ্রেফতার করল উত্তর ২৪ পরগনার পুলিশ। 

আরও পড়ুন, কলকাতায় করোনায় আক্রান্ত আরও ১, রাজ্য়ে সংখ্যা বেড়ে এবার ১০


 রাজ্যে লকডাউন চলাকালীনই মঙ্গলবার ও বুধবার দেখা যায়, মাস্ক পরেই ক্রেতারা মদের দোকানে লাইন দিয়েছেন। মধ্যমগ্রাম, বারাসত, বামনগাছি, দত্তপুকুর, দেগঙ্গার বেশ কিছু সরকারি লাইসেন্সপ্রাপ্ত মদের দোকানের পাশাপাশি মদের কালোবাজারিও হয় বলে অভিযোগ। উত্তর ২৪ পরগনার পুলিশ সুপার অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় জানান,  যে সব পানশালা এবং মদের দোকান নিয়ম মানেনি, সেগুলি বন্ধ করে মালিকদের গ্রেফতার করা হয়েছে। লকডাউনের নিয়ম লঙ্ঘনে কড়া ব্য়বস্থা নেওয়া হচ্ছে। এদিকে স্থানীয়দের অভিযোগ, বহু বলা সত্ত্বেও মদের দোকান বন্ধ করেননি মালিকেরা। এদিকে পাল্লা দিয়ে ক্রেতারা দোকানের সামনে দাঁড়িয়ে মদ কিনেছেন তারা।

আরও পড়ুন, এবার করোনা হাসপাতাল রাজারহাটে, থাকছে একাধিক চিকিৎসক সহ ৫০০টি বেড

অপরদিকে, দত্তপুকুর হাটখোলার কাছে একটি মদের দোকানে দাঁড়ানো এক মহিলা ক্রেতার সাফাই, 'বাজারে স্যানিটাইজ়ার পাওয়া যাচ্ছে না। তাই স্বাস্থ্য দফতরের নির্দেশ মতো অ্যালকোহল আছে এমন জিনিসের জন্য আমার মতো অনেকেই মদ কিনতে এসেছেন।'

আরও পড়ুন, গমগম করা ভিক্টোরিয়া যেন একেবারে ভুতুড়ে বাড়ি, খাঁ খাঁ করছে গোটা চত্বর, দেখুন ভিডিও