করোনা ভাইরাস সংক্রমণ বর্তমানে বিশ্বে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি করেছে। আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছে গেছে ৪ লক্ষের কাছাকাছি। মৃত বেড়া দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার। এই অবস্থায় শেষপর্যন্ত টোকিও অলিম্পিক স্থগিতের সিদ্ধান্তই নেওয়া হল।

ম্যালেরিয়ার ওষুধে ৬ দিনেই করোনা নিরাময়, এখনও ধন্দে গবেষকরা

করোনা যেন ওদের কাছে আশীর্বাদ, জনতা কারফিউতে রাজপথে নিজেদের অধিকার ফলাল পক্ষিবাহিনী

গত ২৪ ঘণ্টায় মার্কিন মুলুকে করোনা প্রাণ কাড়ল শতাধিক, সব ভুলে কিমের প্রশংসায় ব্যস্ত ট্রাম্প

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকেই টোকিও অলিম্পিকের ভবিষ্যৎ নিয়ে উদ্বেগ দেখা দিয়েছিল। তবে জাপান প্রস্তুতি চালিয়ে যাচ্ছিল। দেশের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে দৃঢ়তার সঙ্গে বলে আসছিলেন নির্ধারিত সময়ে, অর্থাৎ ২৪ জুলাই শুরু হবে গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা।  সময়সূচির কোন রকম রদবদল হবে না। 

জাপান সরকারের সঙ্গে সুর মিলিয়ে একই কথা বলছিল আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি আইওসি এবং টোকিও অলিম্পিকের আয়োজক কমিটি। অলিম্পিকের আয়োজন ঠিকভাবে এগিয়ে যাওয়ার নিদর্শন হিসেবে ১৯ মার্চ এথেন্স থেকে অলিম্পিক মশাল তুলে দেওয়া হয় টোকিওর হাতে। আগামী বৃহস্পতিবার দেশজুড়ে অলিম্পিকের মশাল দৌড় শুরুর প্রস্তুতি হিসেবে ফুকুশিমা জেলায় সব রকম আয়োজনও করা হয়েছিল। কিন্তু  শেষ পর্যন্ত করোনাভাইরাসের কাছেই মাথা নোয়াতে হচ্ছে ২০২০ টোকিও অলিম্পিক গেমসকে।

গত সোমবারই  প্রথম দেশ হিসেবে কানাডা অলিম্পিক থেকে নিজেদের নাম প্রত্যাহার করে নেয়। একই পথে হাঁটে অস্ট্রেলিয়াও।  ব্রিটেনের ক্রীড়াবিদরাও অলিম্পিক স্থগিত রাখার অনুরোধ জানান। তারপর থেকেই  আয়োজকেরা বুঝতে পারেন জুলাইতে হতে চলা  অলিম্পিক হয়তো স্থগিতই করতে হবে। সোমবার জাপান অলিম্পিক কমিটির প্রধান ইয়াসুহিরো ইয়ামাশিতা বলেছেন, করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বের অন্য অলিম্পিক কমিটিগুলোর কাছ থেকে গেমস স্থগিত করার আবেদন আসছে ক্রমাগত। সুতরাং বিকল্প হিসেবে গেমস স্থগিত করার কথাই ভাবছেন তাঁরা।

জাপানের প্রধানমন্ত্রী সোমবার পার্লামেন্টের অধিবেশনে জানিয়েছেন, করোনাভাইরাস কারণে যে মহামারির পরিস্থিতি তৈরি হচ্ছে তাতে  গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক নির্ধারিত সময়ে অনুষ্ঠিত হবে না। করোনার কারণে অলিম্পিক এক বছরের জন্য পিছিয়ে দেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির সদস্য ডিক পাউন্ডও। অলিম্পিকের ১২৪ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম মহামারির কারণে পিছিয়ে যেতে চলেছে এই প্রতিযোগিতা। সেক্ষেত্রে এক বছর পর ২০২১ সালে টোকিও অলিম্পিক করার কথা ভাবছে আয়োজকরা। যা অলিম্পিকের ইতিহাসে প্রথমবার ঘটতে চলেছে।