দেশে যখনই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ে তখনও একের পর এক নিধাননিয়ে হাজির হন বিশিষ্ট ব্যক্তিরা। আর এই তালিকায় প্রথম সারিতেই স্থান করে নেন ভারতীয় জনতা পার্টির নেতা, বিধায়ক বা সাংসদরা। এবারও তার অন্যথা হয়নি। গোটা দেশেই রীতিমত খারাপের দিকে যাচ্ছে করোনা সংক্রমণ। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্যে রবিবার দৈনিক সংক্রমণ ৪ লক্ষ ৩ হাজারের বেশি। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা। তখনই করোনা-সুরক্ষার জন্য গোমূত্র পালেন নিধান দিলেন বিজেপির জনপ্রতিনিধি। একই সঙ্গে তিনি কী ভাবে তা পান করতে হবে তাও জানিয়েছেন। 

উত্তর প্রদেশের বৈরিয়ার বিধায়ক সুরেন্দ্র সিং দাবি করেছেন প্রতিদিন যদি খালিপেয়ে গোমূত্র পান করা যায় তাহলেও করোনা থেকে সম্পূর্ণ সুরক্ষা পাওয়া যাবে। এই বিষয় তিনি একশো শতাংশ গ্যারান্টিও দিয়েছেন। একটি ভিডিও শ্যুট করে তিনি তা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়েও দেন। সেই ভিডিওতে তিনি জানান রোজ সকালে তিনি দাঁত মাজার পরই খালিপেটে গোমূত্র পান করেন। তাতেই তিনি দিনের ১৮ ঘণ্টা মানুষের সঙ্গে কাটান। তিনি আরও বলেন মহামারির সামনে বিজ্ঞান প্রযুক্তি সব কিছু হেরে গেছে। আর এই সময় ভগবানের ওপর ভরসা করা ছাড়া আর কিছু করার নেই। ৩ মিনিট ৫৮ সেকেন্ডের ভিডিওটিতে তিনি তাঁর বিধানসভা কেন্দ্রের বাসিন্দাদের গোমূত্র পানের কথাও বলেন। আর গোমূত্র পানের আধ ঘণ্টার মধ্যে অন্য কোনও কিছু খেতেও নিষেধ করেন। 

বিধায়ক মশাই জানিয়েছেন গোমূত্র পান করছেন। তাই নিয়ে এখনও পর্যন্ত সুস্থ রয়েছেন। কোভিড থেকে মুক্তির একমাত্র উপায়ই হল গোমূত্র পান। একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন বিজ্ঞানে বিশ্বাস থাকুক আর না থাকুক গোমূত্র পানই করোনা থেকে মুক্তির একমাত্র উপায়। সংবাদন সংস্থা এনএনআই বিজেপি বিধায়কের গোমূত্র পানের ভিডিওটি প্রচার করেছে। তবে একই সঙ্গে সংস্থার পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বিধায়কের বক্তব্যের কোনও বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে চিকিৎসকের ওপরেই ভরসা রাখা জরুরি। সংস্থার পক্ষ থেকে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত প্রোটোকম মেনে তলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।