জ্বলজ্বলে চোখে দেখলেন প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়দের। শর্টসটা টেনে একটু গুটিয়ে নিয়ে পাথর কোদা পা-দুটিকে আরও একটু ফ্রি করে নিলেন। তারপর ফ্রিকিক, বল জড়িয়ে গেল জালে। আর তারপরই দর্শকদের দিকে ফিরে পা ফাঁক করে দুপাশে হাত ছড়িয়ে দাঁড়িয়ে পড়লেন। সিআরসেভেনের এই অনন্য গোল সেলিব্রেশনের ভঙ্গী, যাঁরা নিয়মিত ফুটবল দেখেন না তাঁদেরও পরিচিত। আর এই ভঙ্গীই বৃহস্পতিবার দেখা গেল ক্রিকেটের ২২ গজে।

রবিনহুডের শহর নটিংহামের ট্রেন্টব্রিজ স্টেডিয়ামে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি বাংলাদেশ। একেবারে পাটা উইকেটে বাংলাদেশের প্রথম সারির বোলাররা কেউই দাঁত ফোটাতে পারেননি। প্রথম উইকেটেই ফিঞ্চ ও ওয়ার্নার ১২১ রান তুলে দিয়েছিলেন। নিয়মিত বোলাররা কার্যকর হচ্ছেন না দেখে বাংলাদেশী অধিনায়ক মাশরাফি মোর্তাজা ২১তম ওভারে বল করতে ডাকেন সৌম্য সরকারকে। আর তিনিই বাংলাদেশকে ব্রেকথ্রু এনে দেন।
    
পঞ্চম বলেই তিনি বাংলাদেশকে ব্রেকথ্রু এনে দেন। অফ স্টাম্পের বাইরে তিনি একটু শর্ট লেন্থের বল দিয়েছিলেন। শর্ট থার্ড ম্যানকে টপকাতে গিয়ে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান অ্যারন ফিঞ্চ। আর তারপরই দেখা গেল তাঁর সিআরসেভেন সেলিব্রেশন। সৌম্য রোনাল্ডোর ভক্ত কি না জানা নেই। কিন্তু তাঁর এই সেলিব্রেশন নজর কেড়েছে। আইসিসি-ও সৌম্য ও রোনাল্ডোর দুটি ছবি পোস্ট করে লিখেছে, 'জন্মের পর ছাড়াছাড়ি হয়ে গিয়েছিল?'