ক্রিকেট জীবনের সায়াহ্নে এসে গিয়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। বয়স তাঁর ৩৭ হলেও, এই কথাটা লিখতে ভয় করে। কারণ অবসরের কথা উঠলেই, সবসময় তাকে বাউন্ডারির বাইরে ফেলে দিয়ে ফিরে এসেছেন ক্যাপ্টেন কুল। তবে একটা সময় তো থামতেই হবে। তারপর কী? কী করবেন অবসর জীবনে? এক ভিডিও বার্তায় সোমবার ভক্তদের কাছে নিজেই সেই কথা জানালেন এমএসডি।

সাধারণত দেখা য়ায় ক্রিকেটাররা অবসরের পর হয় কোচিং করান, নয়তো সেধিয়ে যান ধারাভাষ্য়কারের বক্সে। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়দের মতো কেউ কেউ ক্রিকেট প্রশাসনেও যুক্ত হন। আজহার, গম্ভীর, কাইফরা আবার রাজনীতিতে প্রবেশ করেছেন। তবে তিনি মহেন্দ্র সিং ধোনি। সবসময়ই ব্যতিক্রমী। তিনি জানিয়েছেন, এইসব কিছুই নয়, ক্রিকেট ব্য়াট তুলে রাখার পর তিনি ধাওয়া করবেন তাঁর ছোটবেলার স্বপ্নকে।

কী সেই স্বপ্ন? জানলে অবশ্যই অবাক হবেন। ভিডিও বার্তায় ধোনি জানিয়েছেন তাঁর বরাবর ইচ্ছে ছিল চিত্র শিল্পী হওয়ার। কাজেই ব্য়াট ছেড়ে তিনি হাতে রঙ-তুলি তুলে নিতে চান। তার জন্য এখন থেকেই তিনি প্রস্তুতিও নিতে শুরু করে দিয়েছেন। ভিডিওতে ধোনি তাঁর ইতিমধ্যেই আঁকা তিনটি ছবি তিনি দেখিয়েছেন। একটি নৈস্বর্গিক দৃশ্যের ছবি, একটি সাইফাই ধরণের একটি আকাশযানের ছবি, অপরটি ধোনির নিজের প্রতিকৃতি।

Each and every Dhoni fans must Watch this stunning video #WhyDhoniWhy @msdhoni pic.twitter.com/OGUOgpnQHn

— Svasan (@ssvasan91) May 20, 2019

তবে, ছবিগুলি দেখলে বোঝা যায় সেগুলি হেলিকপ্টার শটের পরাক্রমে আঁকা, সচিনের স্ট্রেট ড্রাইফের সূক্ষ্মতা তাতে নেই। আর তাতেই দজল্পনা তৈরি হয়েছে, ধোনি আসলে এই ভিডিওটি করেছেন, তাঁর অবসর নিয়ে আওয়াজ তোলা সমালোচকদের ব্যঙ্গ করার জন্য। ধোনি তাঁর অপটু হাতের আঁকাগুলি দেখিয়ে বকলমে বুঝিয়ে দিয়েছেন খুব তাড়াতাড়ি অবসরের দুনিয়ায় পা রাখার ভাবনা তাঁর নেই। বিশেষ করে আত্মপ্রতিকৃতির ছবিটি সিএসকে-র হলুদ জার্সিতে হওয়ায় অনেকেই বলছেন, এইবার আইপিএল-এ সিএসকে হয়ে যে দুরন্ত ফর্মে তিনি ব্যাট করেছেন, সেই কথাই মনে করাতে চেয়েছেন এমএসডি।