২০০৩  সালে সেঞ্চুরিয়ানে মেরেছিলেন সচিন, আর তার ১৬ বছর পর ম্যাঞ্চেস্টারে মারলেন রোহিত শর্মা। এক মুম্বইকর যেন আরেকজনের হুবহু কার্বন কপি। বিশ্বকাপ ২০১৯-এর ভারত বনাম পাকিস্তান ম্যাচে এদিন পাকিস্তানের হাসান আলির বলে আপার কাট মেরে কভার এলাকা দিয়ে একটি ছয় মারেন। যা ক্রিকেট দুনিয়াকে নস্টালজিক করে দিয়েছে।

বিশ্বকাপে ভারত পাক মহারণের অন্যতম স্মরণীয় ঘটনা ২০০৩ সালের বিশ্বকাপে সচিনের মারা ওই ছয়। ততদিনে সচিন বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যান। আর শোয়েব আক্রম-ওয়াকারদের যোগ্য উত্তরসুরি। ৭৫ বলে ৯৮ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলার পথে ভারতীয় ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই অফ স্টাম্পের বাইরে শোয়েবের প্রচন্ড গতির বলে মেরেছিলেন ওই আপার কাট। তখন এই শটটি ক্রিকেটে ততটা প্রচলিত ছিল না। ওই একটি শটই ম্য়াচের সুরটা বেঁধে দিয়েছিল।

আর এদিন ভারতের ইনিংসের ২৭তম ওভারে অবিকল একই রকম বল করেন হাসান আলি। আর একই রকম ভাবে আপারকাটে সেই বল গ্যালারিতে পাঠিয়ে দিয়েছেন রোহিত। সচিন আর রোহিতের শটের মধ্যে এত মিল যে আইসিসি-ও দুটি শটের ভিডিও পাশাপাশি পোস্ট করেছে।

ওই ছয়টির আগে হাসান আলিকে আরও একটি দুর্দান্ত পুল শটে ছয় মেরেছিলেন তিনি। আরেকটি মারেন শাদাব খানকে। ১১৩ বল খেলে রোহিত ১৪০ রান করে যান। শুধু তাই নয় শিখরের অবর্তমানে তিনিই আগ্রাসী ভূমিকা নিয়ে কেএল রাহিুলকে ধাতস্ত হওয়ার সুযোগও করে দেন। তাঁর এই ক্রিকেট বোধ সমালোচকদের বাহবা কুড়িয়েছে।