এক অসাধারন জয়ের আনন্দে মাতোয়ারা ইংল্যান্ড। আর তার পুরোপুরি কৃতিত্ব অ্যাসেজ সিরিজের নায়ক বেন স্টোকস-এর। ইতিমধ্যেই ঘরের মাঠে পরপর হারের পর এবার ইংল্যান্ডকে ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ করে দিলেন এই ব্রিটিশ খেলোয়াড়। হেডিংলেতে দুর্দান্ত জয়লাভ ইংল্যান্ডের। লর্ডস থেকে লিডস, মাঠের নাম বদলে গেলেও নায়ক কিন্তু এতটুকু বদলায়নি। তাঁর হাত ধরেই অস্ট্রেলিয়াকে এক উইকেটে হারিয়ে চলতি অ্যাসেজ সিরিজে  সমতায় ফিরল ইংল্যান্ড। 

অ্যাসেজে টেস্টের চতুর্থ দিনে হাতে মাত্র এক উইকেট নিয়েও দেবদূতের মত ক্রিজে টিকে থাকলেন স্টোকস। তাঁদের টার্গেট ছিল ৩৬০। শেষে ব্রিটিশরা হেরে যাওয়ার আশঙ্কায় ভুগলেও তাদের ভরসা জোগান বেন। আর তাঁর সঙ্গে অপরাজেয় ১৩৫ রান। 

প্রথম দুটি ইনিংসে অজি বোলিং ব্রিটিশদের গুটিয়ে দিলেও হ্যাজেলউড, প্যাট কামিন্সদের সামনে রুখে দাঁড়ালেন বেন। শেষ উইকেটে দলের স্কোরবোর্ডেও ৭৬ রান যোগ করলেন তিনি। হাতে মাত্র একটি উইকেট নিয়ে জ্যাক লিচের সঙ্গে পার্টনারশিপে টিকে থাকলেন বেন স্টোকস। তবে সেই পার্টনারশিপে লিচের অবদান মাত্র ১। একাই দলকে জয়ের পথে এগিয়ে নিয়ে গেলেন এই ব্রিটিশ ব্যাটসম্যান।

ইংল্যান্ডের এই দুর্দান্ত জয়ের পর প্রশংসায় ভাসছেন অ্যাসেজ টেস্ট সিরিজের নায়ক। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ৩৪৯ রান তাড়া করে এই প্রথম টেস্ট জয় ব্রিটিশদের। লিডসে চলতি অ্যাসেজ সিরিজে ১-১ ফলাফলে সমতা ফেরাল ইংল্যান্ড। রবিরারে স্টোকস-এর হাত ধরে ব্রিটিশদের এই জয়কে অ্যাসেজের অন্যতম টেস্টের শিরোপা দিয়েছে ব্রিটিশ মডিয়া।