পাকিস্তানের ক্রিকেট ম্যাচ, স্টেডিয়াম থেকে এক বয়স্ক লোক সাদা দাড়ি, পরনে সবুজ রঙের পোষাক, হাতে পাকিস্তানের পতাকা নিয়ে গলা ফাটাচ্ছেন এই দৃশ্য সব ক্রিকেট প্রেমিদেরই পরিচিত। তিনি সুফু আবদুল জলিল। তাকে ক্রিকেট বিশ্ব চেনে 'চাচা ক্রিকেট' নামেই। পাকিস্তান তো বটেই ভারতীয় ক্রিকেটারদের সঙ্গেও তার খুব ভালো সম্পর্ক। কিন্তু সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি ছড়িয়ে পড়ে। যেখানে দাবি করা হয় প্রয়াত হয়েছেন 'চাচা ক্রিকেট'। মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে পড়ে পোস্টটি। 

পোস্টটির ব্যপ্তি এতটাই ছড়িয়ে পড়ে যে সকলেই ভাবতে শুরু করেন যে সত্যিই হয়তো প্রয়াত হয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেটের অন্যতম সেরা সমর্থকের।  এবার নিজের মৃত্যুর গুজব ওড়াতে খোদ সামলে এলেন সুফু আবদুল জলিল। সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও শেয়ার করে বলেন, "মৃত্যু একটি বাস্তবতা, এটি আসবে এবং কেউই আমাকে এর থেকে বাঁচাতে পারবে না," তিনি ভিডিওতে আরও বলেছেন। “যে কেউ আমার ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেছে এবং এই মিথ্যে খবরটি ছড়িয়ে দিয়েছে,আল্লাহ তাকেও সঠিক দিক নির্দেশনা করুন। আমি বেঁচে আছি এবং ভাল আছি। ”

 

 

বিগত পঞ্চাশ বছরের বেশি সময় ধরে ক্রিকেটের অনুরাগী 'চাচা ক্রিকেট'। ক্রিকেটারদের মতই তারও জনপ্রিয়তা বিশ্ব জুড়ে। বিশেষ করে ৯০-এর দশ ও বিংশ শতাব্দীর শুরুর দিকে পাকিস্তানের প্রতিটি ম্যাচে তাকে দেখা যেত প্রিয় দলের হয়ে গলা ফাটাতে। কিন্তু বয়স বাড়া সঙ্গে তার মাঠে যাতায়াত কমেছে। কিন্তু এখনও ক্রিকেটের অন্ধ ভক্ত তিনি। তার বিষয়ে এমন গুজব ছড়ানোয় কিছুটা ব্যথিত 'চাচা ক্রিকেট'। এই ঘটনার সত্যতা সামনে আসার পর নিন্দায় সরব হয়েছেন নেটিজেনরাও।