আরও একবার মহিলা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে চলেছে ভারত। অস্ট্রেলিয়ায় আয়োজিতএই টুর্নামেন্ট শুরু হতে চলেছে ২১ শে ফেব্রুয়ারি থেকে। ফাইনালটি আয়োজিত হবে আইকনিক মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে। ভারত নিজের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে আয়োজক অস্ট্রেলিয়ার। ভারতের অধিনায়কত্বের দায়িত্ব সামলাবেন সিনিয়র মহিলা ক্রিকেটার হরমনপ্রীত কৌর। এখনও অবধি প্রতিযোগিতায় একবারও জিততে পারেনি ভারত। দেখে নেওয়া যাক এই প্রতিযোগিতায় এখনও অবধি ভারতের রেকর্ড....

২০০৯-
এই বছরই প্রথমবারের মতো আয়োজিত হয় মহিলা টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ২০০৯ এ প্রতিযোগিতাটির আয়োজক দেশ ছিল ইংল্যান্ড। প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিল ৮টি দেশ। ৮ টি দেশ কে দুটি গ্রূপে ভাগ করা হয়েছিল। সেবার ভারত নিজেদের প্রথম ম্যাচে ১০ উইকেটে হেরেছিল ইংল্যান্ডের কাছে। এরপর কোনোক্রমে গ্রূপের দ্বিতীয় দল হিসাবে সেমিফাইনালে পৌঁছলেও নিউজিল্যান্ডের কাছে ৫২ রানে হেরে বিদায় নিতে হয় ভারতকে। শেষপর্যন্ত বিশ্বকাপ বিজয়ী হয়েছিল ইংল্যান্ড।

২০১০-
এই বছরও ভারতকে নিজেদের প্রথম ম্যাচটি হারতে হয়। প্রতিপক্ষ ছিল গতবারের বিশ্বকাপের ফাইনালিস্ট নিউজিল্যান্ড। নিউজিল্যান্ডের কাছে ১০ রানে হেরে পরের দুটি ম্যাচে পাকিস্তানকে ৯ উইকেটে এবং শ্রীলঙ্কাকে ৭১ রানে হারিয়ে আবার সেমিতে পৌঁছয় ভারত। আবারও সেমি-ফাইনালে হারের মুখ দেখতে হয় ভারতকে। অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৭ উইকেটে হেরে আবারও প্রতিযোগিতা থেকে বিদায় নেয় ভারত।

২০১২-
২০১২ মহিলা টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ভারতের কাছে সবথেকে হতাশাজনক। এই প্রতিযোগিতায় একটিও ম্যাচ না জিততে পেরে গ্রূপের শেষ অবস্থানে থেকে বিদায় নিয়েছিল ভারত। প্রথম ম্যাচে ভারতকে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারতে হয় ৮ উইকেটে। এরপর ইংল্যান্ডের কাছে ৯ উইকেটে এবং পাকিস্তানের কাছে ১ রানে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে শুন্য হাতে বিদায় নেয় ভারত। ২০১২ মহিলা টি টোয়েন্টির বিশ্বকাপের ফাইনালে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ট্রফি ঘরে তুলেছিল অস্ট্রেলিয়া। 

২০১৪-
এইবারের বিশ্বকাপ আয়োজিত হয়েছিল বাংলাদেশে। গতবারের মতো এইবারের বিশ্বকাপেও সেমিতে উঠতে ব্যর্থ হয় ভারত। প্রথম ম্যাচেই তাদের শ্রীলঙ্কার কাছে হারতে হয় ২২ রানে। এরপর গ্রূপের বাকি ম্যাচে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ কে হারিয়ে দেয় ভারত। কিন্তু তা সত্ত্বেও গ্রূপে তিন নম্বরে শেষ করে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেয় ভারতীয় ক্রিকেট দল। গতবারের মতো এবারও বিশ্বকাপ ট্রফি ঘরে তোলে অস্ট্রেলিয়া। 

২০১৬-
এই বছর প্রথমবারের জন্য টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করে ভারত। যদিও ভারতীয় মহিলা দলের হতশ্রী পারফরম্যান্স অব্যহত থেকেছে এইবারেরও। মাত্র একটি ম্যাচ জিতে গ্রূপের ৪ নম্বর পজিশনে থেকে বিদায় নেয় ভারতীয় দল। প্রথম ম্যাচে তারা বাংলাদেশকে হারায় ৭২ রানে। কিন্তু এরপর পরপর পাকিস্তান, ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং ইংল্যান্ডের কাছে হেরে প্রতিযোগিতা থেকে ছিটকে যায় ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দল। এই বছর প্রথমবারের জন্য মহিলা বিশ্বকাপ ঘরে তোলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। 

২০১৮-
ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে আয়োজিত এই বিশ্বকাপ ভারতীয় মহিলা দলের এখনো অবধি সেরা টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বলে গণ্য করা যেতে পারে। এই টুর্নামেন্টে ভারতকে গ্রূপে পর্বে হারাতে পারেনি কেউই। প্রথম ম্যাচে ভারত ৩৪ রানে হারায় নিউজিল্যান্ডকে। এরপর দ্বিতীয় ম্যাচে চিরশত্রু পাকিস্তানকে ৭ উইকেটে উড়িয়ে দেয় তারা। এরপর আয়ারল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়াকে যথাক্রমে ৫২ এবং ৪৮ রানে হারিয়ে সেমি-ফাইনালে পৌঁছয় ভারত। কিন্তু সেখানে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে মাত্র ১১২ রানে অল আউট হয়ে যায় তারা। ১৭ বল বাকি থাকতেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড। ফাইনালে যদিও ইংল্যান্ড কে ৮ উইকেটে হারিয়ে আবারও ট্রফি ঘরে তোলে অস্ট্রেলিয়া।