৩১শে মার্চে আইপিএল অভিযান শুরু করতে চলেছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। প্রথম ম্যাচে তাদের মুখোমুখি হচ্ছে ২ বারের চ্যাম্পিয়ন কলকাতা নাইট রাইডার্স। নিজেদের অতীত ভুলে নতুন করে শুরু করতে চাইছেন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের খেলোয়াড়রা। বরাবরই ব্যাটিং ভীষণ শক্তিশালী আরসিবির। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। আছেন বিরাট কোহলি, এ বি ডিভিলিয়ার্সদের মতো সুপারস্টাররা। তা সত্ত্বেও আগের বার নিজেদের সঠিক ব্যাটিং কম্বিনেশন তৈরি করতে ব্যার্থ হয়েছিল আরসিবি। নিজের তিন নম্বর পজিশন ছেড়ে পার্থিব প্যাটেলের সাথে ওপেন করতে নেমেছিলেন বিরাট কোহলি। কিন্তু এবার তারা দলে এনেছেন অ্যারন ফিঞ্চ কে। মনে করা হচ্ছে পার্থিব প্যাটেলের সাথে তিনিই নামবেন ওপেন করতে। এছাড়া লোয়ার মিডল অর্ডারকে শক্তিশালী করতে দলে এসেছেন দক্ষিণ আফ্রিকান অলরাউন্ডার ক্রিস মরিস এবং ঘরোয়া ক্রিকেটে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা শাহবাজ আহমেদ। ডেথ বোলিংকে শক্তিশালী করতে দলে এসেছেন কেন রিচার্ডসন। এবার দেখার বিরাট কোহলির দল নিজেদের অধরা খেতাব ঘরে তুলতে পারে কিনা। 

এই মরশুমে ৩১শে মার্চ কলকাতা নাইট রাইডার্সদের বিরুদ্ধে খেলে নিজেদের আইপিএল অভিযান শুরু করতে চলেছে আরসিবি। নিচে তাদের ফিক্সচারটি দেওয়া হল।

১. বনাম কলকাতা নাইট রাইডার্স। ৩১শে মার্চ (হোম)
২. বনাম মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। ৫ই এপ্রিল (অ্যাওয়ে)
৩. বনাম সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। ৭ই এপ্রিল (হোম)
৪. বনাম দিল্লি ক্যাপিটালস। ১০ই এপ্রিল (অ্যাওয়ে)
৫. বনাম  কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। ১৪ই এপ্রিল (অ্যাওয়ে) 
৬. বনাম রাজস্থান রয়েলস। ১৮ই এপ্রিল (হোম)
৭. বনাম দিল্লি ক্যাপিটালস। ২২শে এপ্রিল (হোম)
৮. বনাম রাজস্থান রয়েলস। ২৫শে এপ্রিল (অ্যাওয়ে)
৯. বনাম চেন্নাই সুপার কিংস। ২৭শে এপ্রিল (অ্যাওয়ে)
১০. বনাম কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। ৩রা মে (হোম)
১১. বনাম সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। ৫ই মে (অ্যাওয়ে)
১২. বনাম কলকাতা নাইট রাইডার্স। ১০ই মে (অ্যাওয়ে)
১৩. বনাম চেন্নাই সুপার কিংস। ১৪ই মে (হোম)
১৪. বনাম মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। ১৭ই মে (হোম)