হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে শনিবার হাসপাতালে ভর্তি হন  সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। ইতিমধ্যেই অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করা হয়েছে বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের। বসানো হয়েছে একটি স্টেন্টও। প্রয়োজনা সোমবার আরও দুটি ব্লকেজ ঠিক করতে বসানো হতে পারে আরও দুটি স্টেন্ট। বাইপাসের বিষয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। তবে আপাতত অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে সৌরভের। কথা বলছেন স্বাভাবিকভাবেই।  তবে চিকিৎসার সময় সৌরভের সহযোগিতারি প্রশংসা করেছেন চিকিৎসকরা।

শনিবার সকালে জিম করার সময় হঠাৎই ব্ল্যাকআউট হয়ে মাথা ঘুড়ে যায় সৌরভের। দেরি না করে তড়িঘড়ি সৌরভকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।তবে ইসিজিতে সমস্যা ধরা পড়ায় সৌরভের খুব দ্রুত অ্যাঞ্জিওগ্রাফি করা হয়। সেখানে সৌরভের হার্টে তিনটি ব্লকেজ পাওয়া যায়। তাই তড়িঘড়ি অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে চিকিৎসকরা জানান, সৌরভের ফাইটিং স্পিরিটের জন্য চিকিৎসা করার সময় তাদের অনেক সুবিধা হয়েছে। হৃদরোগে আক্রান্ত, তিনটি ব্লকেজ এমন উদ্বেগজনক খবর পেয়েও একফোটাও আতঙ্কিত হয়ে পড়েননি সৌরভ। বরঞ্চ হাসি মুখে চিকিৎসা পদ্ধতিতে সাহায্য। অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করার সময়ও ডাক্তারদের সঙ্গে কথা বলেন সৌরভ। পুরো চিকিৎসা প্রক্রিয়ায় পুরোপরি স্বাভাবিক ছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

খবর পেয়ে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে দেখতে হাসপাতাল যান রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়, মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, অরূপ বিশ্বা, বিজেপি নেতা প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায়, সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী সহ অন্য়ান্যরা।  সকলেই বলেন সুস্থ ও স্বাভাবিক রয়েছেন সৌরভ। হাসি মুখে সামলাচ্ছেন সমস্ত প্রক্রিয়া। ফলে সকলেই 'দাদা'-র লড়াকু মানসিকতার প্রশংসা করেছেন এবং খুব দ্রুত সুস্থ হয়ে ওছার জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।ফাইটিং স্পিরিট যে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ধমণীর শিরায় শিরায় সে কথা আমাদের সকলেরই জানা। তা সে ক্রিকেটের ২২ গজ হোক আর ব্যক্তিগত জীবন। ফের লড়াকু মানসীকরতার পরিচয় দিয়ে জীবন যুদ্ধে জয়ী হলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।