শুক্রবার বিসিসিআইয়ের অ্যাপেক্স কাউন্সিলের বৈঠকের পর আরও উজ্জ্বল হয়েছে চলতি বছরেই আইপিএল হওয়ার সম্ভাবনা। করোনা সংক্রমণের জন্য দেশের মাটিতে আইপিএল আয়োজন করা সম্ভব না হলে, আরব আমরশাহীকেই পছন্দের তালিকায় রেখেছেন বিসিসিআই কর্তারা। এখন শুধু অপেক্ষা আইসিসির টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাতিলের ঘোষণা করা। তারপর আইপিএলের ক্রীড়া সূচি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড ঘোষণা করবে বলে সূত্রের খবর। শোনা যাচ্ছে চূড়ান্ত সূচি তৈরিও হয়ে গিয়েছে বিসিসিআইয়ের। ২৬ সেপ্টেম্বর আইপিএল শুরুর সম্ভাব্য দিন, আর ফাইনাল ৬ নভেম্বর। বিসিসিআইয়ের কাছ থেকে ইঙ্গিত পেয়ে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে আরব আমিরশাহীও।  বিসিসিআইয়ের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলছে আরব দেশের কর্তারা।

আরও পড়ুনঃআর ফাঁকা মাঠ নয়,আগামী সপ্তাহ থেকেই মাঠে বসে খেলা দেখবেন দর্শকরা

আইপিএল নিয়ে শুধু বোর্ডের তৎপরতা রয়েছে তেমনটাও নয়। ইতিমধ্যেই আইপিএল হওয়ার ইঙ্গিত স্পষ্ট হতেই কোমড় বেঁধে আসরে নেমে পড়েছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের সমস্ত ফ্র্যাঞ্চাইজি দলগুলি। বিদেশের মাটিতে আইপিএল হলে বিপূল ব্যবস্থাপনা করতে হবে। তারজন্য তোরজোর শুরু করে দিয়েছেন ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলির কর্তারা। ক্রিকেটারদের আমিরশাহী উড়িয়ে নিয়ে যেতে চার্টার্ড ফ্লাইটের ব্যবস্থা করা থেকে কোন হোটেলে তাঁরা থাকবেন, সবই খোঁজ খবর নেওয়া শুরু হয়েছে। আসলে করোনা আবহে ক্রিকেটারদের নিয়ে কোনওরকম ঝুঁকি নিতে রাজি নন ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্তারা। সেই কারণেই চার্টার্ড ফ্লাইটের চিন্তাভাবনা। পাশাপাশি একাধিক দলের মালিক চাইছেন, আমিরশাহীতে নয়, ভারতেই যেন আইসলেশন পিরিয়ড কাটাতে দেওয়া হয় ক্রিকেটারদের। শোনা যাচ্ছে তাঁদের দাবি, বায়ো-সিকিওর পরিবেশে সপ্তাহ দুয়েক রাখা হোক ক্রিকেটারদের। তারপর করোনা টেস্ট হোক। এবং রিপোর্ট আসার পর সেই বুঝে আমিরশাহী উড়ে যান ক্রিকেটাররা। ফলে প্রস্তুতি চলছে জোরকদমে।

আরও পড়ুনঃবেন স্টোকসকেই বিশ্বের এক নম্বর অল রাউন্ডার বললেন আকাশ চোপড়া

আরও পড়ুনঃকেনও তার নাম খেলরত্নের তালিকা থেকে সরানো হল,কারণ জানালেন স্বয়ং হরভজন সিং

বিগত কয়েক দিনের ঘটনা প্রবাহে যেন চলতি বছরে আইপিএলের মরা গাঙে বাণ এসেছে। একের পর এক সম্ভাবনা তৈরি হচ্ছে যেগুলি ভারতের কোটিপতি লিগের পক্ষেই যাচ্ছে। আইপিএল ফেরার খবরে খুশি ক্রিকেটাররাও। দীর্ঘ দিন মাঠের বাইরে থাকতে থাকতে খেলায় ফেরার জন্য তারাও মরিয়া হয়ে উঠেছেন। নিজেদের মতো করে প্রস্তুতিও শুরু করে দিয়েছেন অনেক ক্রিকেটাররা। আইপিএল হওয়ার সম্ভাবনা উজ্জ্বল হওয়ার খবরে খুশি বারত তথা বিশ্ব জুড়ে ক্রিকেট প্রেমিরাও।