১৭ ডিসেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে ভারত-অস্ট্রেলিয়া টেস্ট সিরিজ। দুই দেশের মধ্যে ইতিহাসে প্রথম দিন-রাতের পিঙ্ক বল টেস্ট দিয়েই শুরু হবে বর্ডার-গাভাসকর ট্রফি। করোনা আবহে চলতি বছরে এটাই হতে চলেছে টেস্ট ক্রিকেটের সব থেকে হাই প্রোফাইল টেস্ট সিরিজ।  টেস্ট সিরিজ ঘিরে ইতিমধ্যেই চড়তে শুরু করেছে উন্মাদনা ও উত্তেজনার পারদ। সিরিজ শুরু আগে সেই উত্তেজনা আরও বাড়ালেন অস্ট্রেলিয়ার তারকা পেস বোলার প্যাট কামিন্স। তাও আবার ভারতীয় দলকে প্রচ্ছন্ন হুমকিও দিয়ে।

২০১৮-১৯ সালের শেষ টেস্ট সিরিজে ঘরের মাঠে প্রথমবার ভারতের কাছে হারতে হয়েছিল ব্যাগি গ্রিনদের। বল বিকৃতি কাণ্ডের জন্য সেই দলে ছিলেন না ডেভিড ওয়ার্নার ও স্টিভ স্মিথ। ফলে অজিদের সেই আক্রমণাত্ব মনোভাব, স্লেজিংয়ের দাপট তা কিন্তু ততটা দেখা যায়নি। কিন্তু এবার তা হবে না বলেও জানিয়ে দিলেন প্যাট কামিন্স। ভার্চুয়াল প্রেস কনফারেন্সে কার্যত হুমকি দিয়ে ভারতীয় দলের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,'সাদা বলের ক্রিকেটের বন্ধুত্বপূর্ণ আবহ লাল বা গোলাপি বলের ম্যাচে দেখা যাবে না। স্লেজিংয়ের দিক দিয়ে দেখলে এখনও পর্যন্ত দুটো সিরিজ বন্ধুত্বপূর্ণ আবহে খেলা হয়েছে। টেস্ট সিরিজে মোটেই বন্ধুত্বের পরিবেশে লড়াই হবে না। লড়াকু মানসিকতা নিয়েই খেলা হবে।'

টেস্ট সিরিজ শুরু আগে অজি পেস স্টারের এহেন মন্তন্য সিরিজের উত্তজনায় বাড়তি মাত্রা যোগ করবে তা অনস্বীকার্য। গতবারের তুলনায় এবারের অস্ট্রেলিয়া দল যে অনেক বেশি শক্তিশালী সেই বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। দুই দলেই চোট-আঘাতজনিত সমস্যা কিছু থাকলেও, তা যে ম্য়াচে প্রভাব পড়বে কামিন্সের কথা থেকে তা পরিষ্কার। পাল্টা ভারতীয় দলও যে প্রস্তুত তা বলে দিচ্ছে কোহলি ব্রিগেডের শারীরিক ভাষা থাকেই। ফলে বছর শেষে ও নকুন বছরের শুরুতে টানটান ক্রিকেট দেখার অপেক্ষায় ক্রিকেট প্রেমিরা।