ভারতীয় ব্যাটিং লাইন আপে এখন নয়া তারকা ও ধারাবাহিক ব্যাটারের নাম কে এল রাহুল। টি-টোয়েন্টি সিরিজের পর একদিনের সিরিজেও তাঁর নির্ভরযোগ্যতা প্রমাণ করছেন তিনি। সিরিজের প্রথম একদিনের ম্যাচেও ৮৮ রানের একটি দুরন্ত ইনিংস উপহার দিয়েছিলেন। এদিন তৃতীয় একদিনের ম্যাচেও করলেন শতরান। এটা তাঁর চতুর্থ শতরান। এদিন তাঁর শতরানের দৌলতেই ভারত ২৯৬ রানের টার্গেট স্কোর কাড়া করতে সমর্থ হয়। রাহুল শেষমেশ ১১৩ বলে ১১২ রান করে আউট হন। এই ইনিংসে তিনি ৯টি চার ও ২টি ওভার-বাউন্ডারি মারেন। 

এখন পর্যন্ত খেলার যা খবর তাতে ভারতের দেওয়া টার্গেট তাড়া করতে নেমে ধীরস্থীরভাবে ব্যাটিং করছে নিউজিল্যান্ড। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৫ ওভার ব্যাট করেছে কিউয়িরা। এই কয়েক ওভারে ৭ রান সংগ্রহ করেছে তারা। ক্রিজে রয়েছেন তাদের দুই ওপেনার মার্টিন গুপ্তিল ও নিকোলস। 

টসে জিতে এদিন ভারতকে ব্যাট করতে পাঠায় নিউজিল্যান্ড। এদিন পৃথ্বী শ ৪০ রান করলেও অপর ওপেনার ময়াঙ্ক আগরওয়াল ৩ বলে ১ রান করে আউট হয়ে যান। বিরাট কোহলিও বেশিক্ষণ স্থায়ী হননি উইকেটে। তিনি ১২ বলে ৯ রান করেন। শ্রেয়স আইয়ার ৬২ রান করেন। এবং পরে নামা মণীশ পাণ্ডে ৪২ রান করেন। শেষমেশ ভারত ৫০ ওভারে ২৯৬ রান করতে সমর্থ হয়। 

সিরিজের ফয়সলা আগেই হয়ে গিয়েছে। টি টোয়েন্টি সিরিজে নিউজিল্যান্ডকে মাথা তুলতে দেয়নি ভারত। একপেশে সিরিজে ভারত নিউজিল্যান্ডকে ৫-০ ফলে উড়িয়ে দিয়েছিল। কিন্তু ওয়ান ডে সিরিজে দেখা গেছে সম্পূর্ণ্ বিপরীত ছবি। নিউজিল্যান্ডের দুর্দান্ত পারফরম্যান্স এর সামনে একবারও মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেনি ভারত। পর পর দুই একদিনের ম্যাচে বিশ্রীভাবে হেরে আজ মান বাঁচাতে লড়ছে ভারত।

কেবলমাত্র নিয়মরক্ষার ম্যাচ হলেও এই ম্যাচেও কিছু পরিবর্তন হয়েছে। দ্বিতীয় ম্যাচে পারফরম্যান্স করতে না পারা কেদার যাদব বাদ পড়েছেন প্রথম একাদশ থেকে। তার জায়গায় দলে এসেছেন টি টোয়েন্টি সিরিজে ব্যাট হাতে ভালো ফর্মে থাকা মনীশ পান্ডে। চতুর্থ টি টোয়েন্টি তে ভারতের ম্যাচ জেতায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন তিনি। 

নিউজিল্যান্ডের টিমেও হয়েছে পরিবর্তন। চতুর্থ টি টোয়েন্টি থেকেই নিউজিল্যান্ড চোটের জন্য পায়নি তাদের অধিনায়ককে।কাঁধের চোটে ভুগছিলেন কিউয়ি অধিনায়ক। এখন সেই চোট সারিয়ে দলে ফের প্রত্যাবর্তন করেছেন কেন উইলিয়ামসন।