আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদীর স্টেডিয়াম যেন স্পিনারদের স্বর্গরাজ্য। বল যেন সাপ। ব্যাটসম্যানদের কাজ শুধুই আসা আর যাওয়া। দ্বিতীয় দিনে খেলা শেষও হয়ে যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। দ্বিতীয় দিনে ৯৯ রানে ৩ উইকেট থেকে খেলা শুরু করলেও, ভারতের ইনিংস শেষ হয়ে যায় মাত্র ১৪৫ রান। ৩৩ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ড ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলেও, অশ্বিন ও অক্ষরদের দাপটে তা সম্ভব হয়নি। মাত্র  ৮১ রানে শেষ হয়ে যায় জো রুটের দলের দ্বিতীয় ইনিংস।

ইংল্যান্ড দল দ্বিতীয় ইনিংসেও ব্যাট করতে নেমে ভারতীয় স্পিনারদের সামনে আরও একবার নাস্তানাবুদ হতে হয়। বেন স্টোকসের ২৫ ও জো রুটের ১৯ রান করে কিছুটা লড়াই দেওয়ার চেষ্টা করলেও, তা বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ড দলের স্কোরকার্ডে রুট, স্টোকস ও অলি পপ ছাড়া কেউ দুই অঙ্কের রানে পৌছতে পারেনি। দ্বিতীয় ইনিংসেও ৫ উইকেট  নিয়ে অনন্য নজির গড়েন অক্ষর প্যাটেল। কেরিয়ারের প্রথম দুই ম্যাচের তিন ইনিংসে ৫ উইকেট বা তার বেশি নিয়ে ইতিহাসের পাতায় নাম লেখালেন অক্ষর। এছাড়া অশ্বিন নেন ৪টি উইকেট ও ওয়াশিংটন সুন্দর নেন ১টি উইকেট।

প্রসঙ্গত, এদিন দিনের শুরুতে ৯৯ রানে ৩ উইকেট থেকে খেলা শুরু করে ভারতীয় দল। কিন্তু জো রুটের ৫ উইকেট ও জ্যাক লিচের ৪ উইকেটের  সৌজন্যে ১৪৫ রানেই শেষ হয়ে যায় ভারতের প্রথম ইনিংস। ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ ৬৬ রান করেন রোহিত শর্মা। ৩৩ রানের লিড পায় ভারত। দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ড ৮১ রানে অলআউট হয়ে যাওয়ায় ৪৮ রানে রানের লিড পায় জো রুটের দল। ভারতের টার্গেট ৪৯ রান।