মাঠে চির প্রতীদ্বন্দ্বী বিরাট কোহলি-জো রুট। আধিনাক ক্রিকেটে যে ফ্যাভ ফোর বলা হয় তাতে  বিরাট, স্মিথ, কেন উইলিয়ামসনের সঙ্গে রেয়ছেন রুটও। একে অপরের মুখোমুখি হলে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে কেউ কাওকে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়েন না। কিন্তু সব কিছুর পরও তারা মানুষ। তাই চেন্নাইতে ভারত বনাম ইংল্যান্ডের প্রথম টেস্টে স্পোর্টসম্যান স্পিরিটের অনন্য নজির গড়লেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। যার প্রশংসায় পঞ্চমুখ সকলে।

চেন্নাইতে শুরু হয়েছে ভারত ইংল্যান্ড প্রথম টেস্ট। বিপদের সময় দলের দায়িত্ব নিয়ে দিনভর অনবদ্য ব্যাটিং করেছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুট। নিজের শততম টেস্টে সেঞ্চুরি কিংবদন্তীদের তালিকাতেও নাম লিখিয়েছেন তিনি। পিতৃত্বকালীন ছুটি কাটিয়ে ২২ গজের ফেরার দিনই রুটের ইনিংস চাপ বাড়িয়েছে অধিনায়ক তথা ব্যাটসম্যান কোহলির উপরও। কিন্তু দীর্ঘক্ষণ ব্যাট করার পর যখন পেশির টানে ব্যাথায় কাতর জো রুট, তখন তার ফিজিও ভূমিকায় মাঠে অবতীর্ণ হলেন বিরাট কোহলি।

 

 

সকাল থেকে সেশনের পর সেশন ব্যাটিং করেছেন জো রুট। তৃতীয় সেশনের খেলা চলাকালীন অশ্বিনকে স্লগ সুইপে একটি চার মারেন রুট। তারপরই পেশির টানে ছটফট করতে দেখা যায় ব্রিটিশ অধিনায়ককে। অদূরে দাঁড়িয়ে থাকা কোহালি তৎক্ষণাত রুটকে সাহায্য করতে ছুটে আসেন। মাঠে বিপক্ষ দলের ফিজিয়ো আসার অপেক্ষা করেননি তিনি। সোজা রুটের পা তুলে নেন নিজের হাতে। মুড়িয়ে-বেঁকিয়ে টান ধরে থাকা পেশি শিথিল করেন। ভারত অধিনায়কের স্পোর্টসম্য়ান স্পিরিটের এই ভিডিও মুহূর্তে ভাইরাল হয়েছে নেট দুনিয়ায়।

 

 

বিরাট কোহলির স্পোর্টসম্যান স্পিরিটের প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটিজেনরা। বিসিসিআই, ইসিবি ও আইসিসি কোহলির এমন ক্রিকেটের স্পিরিটকে অন্য মাত্রা দেওয়ার প্রচেষ্টাকে স্বীকৃতি জানায়। তারা সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিও পোস্ট করে কুর্নিশ জানায় ভারত অধিনায়ককে। ইংল্য়ান্ড দর্শকরাও বিরাটের ভূমিকার প্রশংসা করেছেন। প্রতীদ্বন্দ্বীতার উর্ধ্বে উঠে সকলের মন জয় করে নিয়েছেন ভিকে।