দেশের মাঠে প্রথম পিঙ্ক বল টেস্ট। শুক্রবার থেকে এই ম্যাচ শুরু। গোটা শহর জুরে উন্মাদনার পারদ উঠেছে চরমে। একই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে টিকিটের চাহিদা। অনলাইনে প্রথম তিন দিনের টিকিট এক সপ্তাহ আগেই শেষ হয়ে গেছে। সিএবির কাছে অফলাইনে ছাড়ার মত টিকিটও নেই। টিকিটের চাহিদা যে পর্যায়ে আছে তাতে কালোবাজারির যে একটা সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে সেটা ভালই টের পাচ্ছিল কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ। সেই মতই ইডেন চত্ত্বরে কড়া নজর রাখছিলেন তারা। 

দেখুন ভিডিও - ইডেনে সোয়েটার গায়ে অনুশীলনে বিরাট, গোলাপি যুদ্ধের প্রস্তুতি তুঙ্গে

বুধবার থেকে ইডেনে প্রস্তুতি শুরু করেছে ভারত ও বাংলাদেশ দুই দল। তাই ইডেনের বাইরে প্রচুর মানুষের ভীড়। আর সেই সুযোগে চওড়া দামে চলছিল টিকিটেক কালোবাজারি। খবর পেয়ে ছয় সদস্যের একটি জালকে হাতে নাতে ধরে ফেলে কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ। তাদের থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে বিভিন্ন দামের ৩৮টি টিকিট। ছয় সদস্যের এই দলকে আটক করে ময়দান থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। 

আরও পড়ুন - ইডেনে প্রস্তুতির ফাইনাল টাচ, উইকেট দেখে খুশি সৌরভ

ইডেনে দিন রাতের টেস্ট নিয়ে উন্মাদনার ছবি প্রথম থেকেই দেখা যাচ্ছিল। টিকিট নিয়ে সব মহলের মানুষের মধ্যেই ছিল তুমুল চাহিদা। টেস্ট ক্রিকেটে মাঠে লোক টেনে আনতে চেষ্টার অন্ত রাখেনি সিএবি। প্রথম দিন রাতের টেস্ট নিয়ে একের পর এক পরিকল্পনার সামনে এনেছে তারা। আর সেই সব পরিকল্পনা সবার মনে উত্সাহ আরও বাড়িয়ে তুলেছিল। তাই প্রতিদিনই টিকিটের আশায় ইডেনের সামনে ভীড় জমাচ্ছিলেন সামাধারণ মানুষ। আর সেই সুযোগটাই কাজে লাগিয়ে চলছিল টিকিটের কালোবাজারি। বৃহস্পতিবারও ময়দানের বটতলায় এই ছবিটা বজায় থাকলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। 

আরও পড়ুন - অতিথি বিরাট, রাত জেগে কী উপহার তৈরি করল অনাথ আশ্রমের শিশুরা