দিন ২০ আগে বসেছিল প্রথম টেস্ট। আর ২৮ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার অ্যাপোলো হাসপাতালে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের হার্টে যে আরও ২টি ব্লকেজ ছিল তাতে স্টেন্টিং করা হল। হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দেবি শেট্টি ও অশ্বিন মেহেতার তত্ত্বাবধানে হয় গোটা অস্ত্রপচারের প্রক্রিয়া। ছিলেন সৌরভের চিকিৎসায় গঠিত মেডিক্যাল বোর্ডের তিন চিকিৎসক সরোজ মণ্ডল, আফতাব খান ও সপ্তর্ষী বসু। দুপুর ৩টে ১০ নাগাদ প্রথমে অ্যাঞ্জিওগ্রাম করা হয়। তারপর রিপোর্ট দেখেই সঙ্গে সঙ্গে স্টেন্ট বসানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে চলে সৌরভের অস্ত্রপচার। প্রথম স্টেন্টিংয়ের মতই ডান হাত দিয়ে বসানো হয়ছে স্টেন্ট। অপারেশনের পর সম্পূর্ণ স্থিতিশীল রয়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। 

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে দেখতে বৃহস্পতিবার বিকেলে হাসপাতালে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোাধ্যায়। সৌরভের বিষয়ে যাবতীয় খোজখবর নেন তিনি। সৌরভের অস্ত্রপচার হওয়ার পরই হাসপাতালে পৌছন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কথা বলেন পরিবারের লোকেদের সঙ্গে। সর্বতভাবে পাশে থাকার আশ্বাসও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি এদিন সকালে সৌরভকে ফোন করে তাঁর স্বাস্থ্যের খবর নেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এর আগে সৌরভ উডল্যাবন্ডসে ভর্তি থাকাকালীনও সৌরভকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন সকালেই অ্যাপোলো হাসপাতালে এসে দেখা করে গিয়েছেন সিপিএম নেতা অশোক ভট্টাচার্যও।

অস্ত্রোপচারের পর হাপাতালের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়া। তবে ছুটি কবে হবে তা এখনই বলা সম্ভব নয়। পর্যবেক্ষণের পর তা জানানো হবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। হাসপাতাল থেকে ছুটি পাওয়ার বছর খানক বেশ কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে বিসিসিআই প্রেসিডেন্টকে। একইসঙ্গে কেতে হবে রক্ত তরল রাখার ওষুধ সহ আরও কিছু মেডিসিন। এদিন সৌরভের সফল অস্ত্রপচারের খবর পেয়ে স্বস্তিতে তার কোটি কোটি ভক্ত থেকে ক্রিকেট বিশ্ব।