দেশের ভয়ঙ্কর করোনা পরিস্থিতি। দৈনিক প্রাণ হারাচ্ছে  ৪ হাজেরের বেশি মানুষ। দৈনিক আক্রান্তের সংখ্য়াতেও কোনওভাবেই লাগাম টানা যাচ্ছে না। সাহায্যের হাত বাড়িয়ে এগিয়ে আসছেনন সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ সহ ক্রিকেটাররা। এই পরিস্থিতিতে গাড়ি নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে গিয়ে বিতর্কে জড়ালেন ভারতীয় ক্রিকেটের তরুণ তুর্কী ও দিল্লি ক্যাপিটালসের তারকা ব্যাটসম্যান পৃ্থ্বি শ। শুধু তাই নয় বিনা অনুমতিতে লকডাউন ভঙ্গ করায় জড়ালেন আইনি সমস্যায়।

করোনার প্রোকপে দেশের মধ্যে সবথেকে খারাপ পরিস্থিতি ছিল মহারাষ্ট্রের। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে করা হয়েছে লকডাউন। সঙ্গে লকডাউন মানার জন্য জারি করা হয়ছে কঠোর নিয়ম। এই পরিস্থিতিকে বিনা অনুমতিতে লকডাউনের নিয়ম ভঙ্গ করে বন্ধুদের সঙ্গে মুম্বই থেকে গাড়ি করে গোয়া যাচ্ছিলেন পৃথ্বি শ। মহারাষ্ট্রের আম্বোলিতে পৃথ্বীদের গাড়ি আটকে পুলিস ই-পাস দেখতে চায়। কিন্তু পৃথ্বীর কাছে কোনও অনুমোদন পত্র না থাকায়, পৃথ্বী অনলাইনে অনুমতি পত্রের আবেদন জানান। প্রায় এক ঘণ্টা পর পৃথ্বীর মোবাইলে সেই ই-পাস, তারপর পুলিস পৃথ্বীকে গোয়ায় যাওয়ার সবুজ সঙ্কেত দেয়।

ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার। কিন্তু প-থ্বি শ-য়ের এই কাণ্ড সামনে আসল কয়েক দিন পরে। বর্তমানে ইংল্যান্ডগামী ভারতীয় দলে জায়গা হয়নি পৃথ্বি শ-র। করোনার কারণে শ্রীলঙ্কা সফর ঘিরেও তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তা। এই পরিস্থিতি কোনও খেলা নেই ভারতীয় তরুণ তারকার। তাই বন্ধুদের সঙ্গে ঘোরার পরিকল্পনা করেন পৃথ্বি। দেশের এই পরিস্থতিতে জাতীয় দলের ক্রিকেটারের এহেন আচরণে উঠছে প্রশ্ন। নেটদুনিয়াতেও পৃথ্বির ভূমিকার ,সমালোচনা করছেন অনেকেই।