দেশ জুড়ে ফের ভয়ঙ্কর গতিতে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। বিশ্ব মহামারী বাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ বলছেন অনেকেই। গতবারের মতই দেশের মধ্যে সব থেকে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা মহারাষ্ট্রে। এবার মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন কিংবদন্তী প্রাক্তন ক্রিকেটার সচিন তেন্ডুলকর। সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেই এই খবর জানিয়েছেন মাস্টার ব্লাস্টার। সচিন তেন্ডুলকররের করোনা আক্রান্তের খবর সামনে আসতেই উদ্বেগ বেড়েছে গোটা দেশবাসীর। 

 

 

সচিন তেন্ডুলকর সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন,'আমি পরীক্ষা করাচ্ছিলাম। নিজেকে করোনামুক্ত রাখতে সব রকম চেষ্টা করেছি। আজ করোনা আক্রান্ত আমি। কিছু উপসর্গ রয়েছে। বাড়িতেই নিভৃতবাসে রয়েছি। বাড়ির বাকিদের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনে চলছি। সকল স্বাস্থ্যকর্মীদের ধন্যবাদ'। করোনা আক্রান্ত হলেও বর্তমানে শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে মাস্টার ব্লাস্টারের। বাড়িতেই রয়েছেন সচিন তেন্ডুলকর।

কয়েক দিন আগেই রোড সেফটি ওয়ার্লাড সিরিজ খেলেছেন সচিন তেন্ডুলকর। ভারতীয় লেজেন্ড দলের অধিনায়ক ছিলেন তিনি। দলকে চ্যাম্পিয়নও কেরছেন। কিন্তু সম্পূর্ণ জৈব সুরক্ষা বলয়ে থেকে হয়েছিল খেলা। তারপরই বাড়ি ফিরতে কীভাবে কোরানা আক্রান্ত হলেন সচিন তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। সচিনের করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরই উদ্বেগ বেড়েছে ক্রীড়া মহলে। প্রাক্তন-বর্তমান ক্রিকেটার থেকে সতিন ভক্তরা সকলেই মাস্টার ব্লাস্টারের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছে।