বিতর্কিত ভারতীয় পেসার শান্তাকুমারণ শ্রীশান্ত-কে পরবর্তী রঞ্জি মরশুমের জন্য আয়োজিত প্রস্তুতি শিবিরে ডাক দিয়েছে কেরালা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন। শেষবার তিনি ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেট খেলতে মাঠে নেমেছিলেন ২০১৩ এর ইরানি কাপে। সেবার অবশিষ্ট ভারত একাদশের হয়ে মাঠে নেমেছিলেন শ্রীশান্ত। তারপর আইপিএল ২০১৩ তে ম্যাচ গড়াপেটা সংক্রান্ত বিতর্কে জড়িয়ে ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত হতে হয়েছিল। যদিও শেষ পর্যন্ত তাকে দোষী প্রমাণিত করা যায়নি। দীর্ঘ ৭ বছর বাদে সমস্ত সমালোচনার জবাব দেওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন তিনি। এখন দেখার সময়মতো জ্বলে উঠতে পারেন কিনা। 

আরও পড়ুনঃ২০ জুন ফিরছে সিঁরি আ,জেনে নিন ইতালিয়ান লিগের ইতিহাসের সেরা ১০ গোলদাতাদের

কেরালা রঞ্জি দলের অধিনায়ক সচিন বেবি সম্প্রতি শ্রীশান্তকে নিয়ে বিবৃতি দিয়েছিলেন। তিনি জানিয়েছেন যে এখনও পুরোনো ধার হারিয়ে ফেলেননি শ্রীশান্ত। তিনি নিজে নেটে শ্রীশান্তের বল খেলতে গিয়ে সমস্যায় পড়েছেন। বলের গতি কাজে লাগিয়ে এখনও আনপ্লেয়েবল হয়ে উঠার ক্ষমতা রাখেন শ্রীশান্ত। মাত্র কয়েকদিন হল কেরালা অধিনায়কের সাথে অনুশীলন শুরু করেছেন শ্রীশান্ত। এর মধ্যেই নিজেকে প্রমাণ করার লক্ষ্যে মরিয়া হয়ে উঠেছেন কোচির তারকা পেসার। 

আরও পড়ুনঃআইপিএলের টাইটেল স্পনসর চিনা কোম্পানি, কী জানাল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড

আরও পড়ুনঃ২০ তারিখ ফিরছে সিঁরি আ,চিনে নিন ইতালিয়ান লিগের ইতিহাসের সেরা ১০ গোলকিপারদের

যদিও এখনও যে নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে শ্রীশান্ত খেলছেন, এমনটা নয়। ফিটনেসের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে তবেই দলে সুযোগ পাবেন তিনি। কেরালার হেড কোচ প্রাক্তন ভারতীয় পেসার টিনু ইয়োহানা জানিয়েছেন শ্রীশান্তকে পেয়ে তারা খুশি। এখনও ম্যাচ ফিটনেস ফিরে পাওয়ার জন্য তাকে অনেক পরিশ্রম করতে হবে। দীর্ঘদিন ক্রিকেট থেকে বাইরে থাকায় যেটা খুবই স্বাভাবিক। চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে শেষ হচ্ছে তার শাস্তির মেয়াদ।