করোনা আবহে বল পালিসে থুতু, লালারস বা ঘামের ব্যবহার বন্ধ করা হয়েছে। সংক্রমণ রুখতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থা আইসিসি। বল পালিসে অন্য কোনও কৃত্রিম জিনিস ব্যবহারেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। একইসঙ্গে নিয়ম করা হয়েছে বল ধরার আগে ব্যবহার কারতে হবে স্যানিটাইজার। এবার সেই বল পালিসেই স্যানিটাইজার ব্যবহার করে নির্বাসিত হলেন অস্ট্রেলিয়ান পেস বোলার মিচ ক্লাডেন। বর্তমানে ইংল্যান্ডের কাউন্টি দল সাসেক্সের হয়ে খেলেন তিনি।

আরও পড়ুনঃশুধু তার স্বামী নয়, হাই তোলেন স্মিথও, সরফরাজের পাশে দাঁড়ালেন তার স্ত্রী

গত মাসে কাউন্টি ক্রিকেটে সাসেক্সের সঙ্গে ম্যাচ চলছিল  মিডলসেক্সের। সেই ম্যাচে প্রথম ইনিংসে বল করার সময় অভিযোগ ওঠে মিচ ক্লাডেন স্যানিটাইজার দিয়ে বল পালিশ করেছেন। সেই ইনিংসে তিনটি উইকেট নিয়েছিলেন ক্লেডন। এই অভিযোগ পেয়ে তার ক্লাডেনের বিরুদ্ধে শুরু হয় তদন্ত। অবশেষে দোষ প্রমাণিত হওয়ায় মিচ ক্লাডেনকে নির্বাসিত করল সাসেক্স। নিজেদের ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে সাসেক্স লিখেছে,'মিচ ক্লেডনকে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের নিয়মানুযায়ী নির্বাসিত করা হয়েছে। মিডলসেক্সের বিরুদ্ধে বল করার সময়ে ক্লেডন হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করেছিল।'

আরও পড়ুনঃআইপিএলের স্বপ্নসুন্দরী চিয়ারলিডার, করোনা এবার কাড়ল সেই গ্ল্যামার, জেনে নিন চিয়ারলিডার্সদের নিয়ে ১০টি তথ্য

আরও পড়ুনঃহার্দিক একা নয়, বিয়ের আগে বাবা হয়েছেন একাধিক তারকা ক্রিকেটার

দীর্ঘদিন ধরে সাসেক্সের অভিজ্ঞ বোলার মিচ ক্লাডেন। কাউন্টি ক্রিকেটে ১১২টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ, ১১০টি লিস্ট এ এবং ১৪৭টি টি টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। ৩১০টি প্রথম শ্রেণির উইকেট তাঁর ঝুলিতে। লিস্ট এ এবং টি টোয়েন্টি-তে ক্লেডন ১৩৮টি এবং ১৫৯টি উইকেট নিয়েছেন। কিন্তু এমন অভিজ্ঞ বোলারের এহেন আচরণে হতবাক ক্লাব ও তার সতীর্থরা। তার এই কাজের জন্য স্বাস্থ্য সংকটে পড়তে পারত অনেকেই। আর করোনা আবহে এই সমস্ত বিষয়কে খুব গুরুত্ব দিয়ে দেখছে সব বোর্ড। তাই তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে দুবার ভাবেবনি সাসেক্স কর্তৃপক্ষ।