পথটা দেখিয়েছিল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড। ফ্রন্ট ফুট নো-বল বিতর্ক মেটাতে এবার আসরে নামল আইসিসি। শুক্রবার থেকে শুরু হতে চলা ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে পরীক্ষা মূলক ভাবে শুরু হচ্ছে আইসিসি’র নতুন নিয়ম। বৃহস্পতিবার আইসিসি এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টি-২০ ও একদিনের সিরিজে পরীক্ষা মূলক ভাবে একটি নতুন নিয়ম চালু করতে চলেছে আইসিসি। এই সিরিজে অন ফিল্ড আম্পায়ার ফ্রান্ট ফুট নো-বল ডাকতে পারবেন না। নো বলের সিদ্ধান্ত নেবেন থার্ড আম্পায়ার। তিনিই গোটা বিষয়টির ওপর নজর রাখবেন। এবং ক্যামেরায়া দেখে যদি তাঁর কোনও বোলার ক্রিজের বাইরে পা দিয়ে বোলিং করেছেন তাহলে অন ফিল্ড আম্পায়ারকে সেই সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেবেন থার্ডা আম্পায়ার। 

আরও পড়ুন - একজন পেসারের জায়গা ফাঁকা আছে, ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের আগে বলছেন কোহলি

এখন প্রশ্ন অন ফিল্ড আম্পায়ার তাহলে কী নো বল ডাকতে পারবেন না? যদি তিনি দেখতে পান যে ক্রিজের বাইরে পা ছিল তাহলে কী হবে। অন ফিল্ড আম্পায়ারও নিজের কথা জানাতে পারবেন থার্ড আম্পায়ারকে। বস্কে বসে থাকা থার্ড আম্পায়ার টিভি রিপ্লেতে দেখে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেবেন। কার্যত সৌরভরে বিসিসিআই আগামী আইপিএল থেকে যে নো বল আম্পায়ার পদ্ধতি চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তাতেই সিলমোহর দিতে চলেছে আইসিসি। যে পদ্ধতি নিয়ে ইতিমধ্যেই পরীক্ষা শুরু করেছে বিসিসিআই। পিঙ্ক বল টেস্টে এই নো বল আম্পায়ারকে সঠিক ভাবে ব্যবহারের জন্য বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। রান আউট বা স্টাম্পিং দেখার জন্য যে ক্যামেরা ব্যবহার করা হয় সেই ক্যামেরাকেই ব্যবহার করা হয়েছিল নো বল আম্পায়ারের ক্যামেরা হিসেবে। 

আরও পড়ুন - গব্বরের জন্মদিন, সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছার জোয়ার

আইসিসি জানিয়েছে এই পরীক্ষআর সময় বেনিফিট অব ডাউট থাকবে বোলারদের পক্ষে। কিন্তু যদি সিদ্ধান্ত জানাতে দেরি হয় তাহলে? আইসিসি জানিয়েছে থার্ড আম্পায়ার নো বলের সিদ্ধান্ত জানানোর মাঝে যদি কোনও ব্যাটসম্যান আউট হয়ে যান তখন কী হবে? অন ফিল্ড আম্পায়ার সেক্ষেত্রে নিজের সিদ্ধান্ত বদলে আবার ব্যাটসম্যানকে মাঠে ফিরিয়ে আনতে পারবেন। আইসিসি যে ভাবে গোটা বিষয়টি সাজিয়েছে তাতে সিদ্ধান্ত গ্রহণ অনেকটাই ত্রুটি মুক্ত হলেও খেলার গতি কিছুটা কমতে পারে। এমনটাই মনে করছেন ক্রিকেট পন্ডিতরা। অনেকে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ অবশ্য এই সিদ্ধান্ততে ভাল চোটে দেখছেন না, তাদের মতে ক্রিকেট সম্পুর্ণ ভাবে প্রযুক্তির ওপর নির্ভারশীল হয়ে পড়ছে। 

আরও পড়ুন - পেশাদার শ্যুটারদের জন্য অস্ত্র আইনে বদল চাই, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকে চিঠি ক্রীড়ামন্ত্রীর