ওয়েলিংটনে টেস্টের তৃতীয় দিনে দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ১৯ রান করে আউট হলেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। নিউজিল্যান্ড প্রথম ইনিংসের পর ১৮৩ রানের লিড নেয়। এই সময় সকলে বিরাটের কাছ থেকে একটি অধিনায়কচিত ইনিংস আশা করেছিলেন। কিন্তু সেই আশা পূর্ণ হলো না। আবারও অফস্টাম্পের বাইরের বলে খোঁচা দিয়ে ফিরে গেলেন। প্রথম ইনিংসে তাকে ফিরিয়েছিলেন নবাগত কাইল জেমিসন। দ্বিতীয় ইনিংসে ফিরলেন অভিজ্ঞ বোল্টের বলে। প্রথম ইনিংসে মাত্র ২ রান করেছিলেন। দ্বিতীয় ইনিংসে অনেক প্রত্যাশা থাকলেও শেষপর্যন্ত হতাশ করলেন। 

শেষবার ২০১৮ তে দেশের বাইরে টেস্ট সিরিজে ভালো পারফরম্যান্স করেছিলেন কোহলি। সেবার ইংল্যান্ডের মাটিতে ব্যাট হাতে দুরন্ত ব্যাটিং করেছিলেন তিনি। যদিও ভারতকে সেই সিরিজ হারাতে হয়েছিল ৪-১ ব্যাবধানে কিন্তু কোহলির ব্যাট গর্জে উঠেছিল গোটা সিরিজ জুড়ে। সেই সিরিজে মোট ৫৯৩ রান করেছিলেন তিনি। তারপর থেকে দেশের বাইরে খেলেছেন ৭ টি টেস্ট, ব্যাটিং করেছেন ১৪ টি ইনিংসেই। কিন্তু এর মধ্যে একবারও শতরানের গন্ডি ছুঁতে পারেননি তিনি। এই ৭ টি ম্যাচে তার অ্যাভারেজ মাত্র ৩৩। যেখানে গোটা কেরিয়ারে তার অ্যাভারেজ প্রায় ৫৫।পরিসংখ্যান স্পষ্ট বলে দিচ্ছে ঘরের বাইরে ফর্ম হাতড়ে বেড়াচ্ছেন বিরাট কোহলি। 

শুধু তাই নয়, সাম্প্রতিক নিউজিল্যান্ড ট্যুরেও নিজের ফর্মের ধারেকাছে নেই কোহলি। গোটা ট্যুরে তিনটি ভিন্ন ফরম্যাট মিলিয়ে খেলে ফেলেছেন ৯ টি ইনিংস। এর মধ্যে মাত্র একবারই পেরোতে পেরেছেন পঞ্চাশের গন্ডি। তার এই ফর্ম শুধু তার নিজের ওপর নয়, প্রভাব ফেলছে দলের পারফরম্যান্সে। 

সিরিজ শুরুর আগে কিউয়ি পেসার ট্রেন্ট বোল্ট বলেছিলেন তিনি জানেন কিভাবে বল করলে কোহলিকে আটকানো যাবে। দ্বিতীয় ইনিংসে কোহলিকে ফিরিয়ে নিজের কথা রেখে তৃপ্ত বোল্ট। এই মুহুর্তে ব্যাটিংয়ের দিক থেকে খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন কোহলি। প্রত্যেক ক্রীড়াবিদের জীবনেই এমন খারাপ সময় আসে। এখন দেখার কোহলি কত তাড়াতাড়ি সেই খারাপ সময় কাটিয়ে ওঠেন।