ভারতকে হারিয়ে সদ্য অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ জিতেছে বাংলাদেশ। এবার সেই জয়ে খুঁজে পাওয়া গেল ভারতের একজনের সঙ্গে সংযোগ। সকলে বলছেন বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জয়ের পেছনে প্রত্যক্ষভাবে হাত রয়েছে তাঁর। 

বিশ্বকাপের এক বছর আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের তত্ত্বাবধানে আয়োজিত হয়েছিল বিশেষ প্রশিক্ষণ ক্যাম্প। মিরপুরে ওই ক্যাম্পের নাম রাখা হয়েছিল হাই-পারফরম্যান্স একাডেমি। সেই হাই-পারফরম্যান্স একাডেমিতেই ব্যাটিং পরামর্শ হিসাবে নিযুক্ত করা হয় ভারতের প্রাক্তন ওপেনার এবং মুম্বাইয়ের হয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে সবচেয়ে সফল ব্যাটসম্যান ওয়াসিম জাফর। সেই ক্যাম্পে বাংলাদেশের অনুর্ধ ১৯ দলের অধিনায়ক আকবর আলি সহ বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জয়ী দলের অনেক ব্যাটসম্যানকেই ব্যাটিং প্রশিক্ষণ দিয়েছিল প্রাক্তন ভারতীয় ব্যাটসম্যান। শুধুমাত্র ব্যাটিংয়ের খুঁটিনাটিই নয়, কোন পরিস্থিতিতে কি রকম মানসিকতার সাথে ব্যাটিং করা উচিত তা নিয়েও বাংলাদেশের অনুর্ধ ১৯ দলকে পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি। যার ফল ফাইনালে দেখা গেল হাতেনাতে। চাপের মুখে প্রতিকূল পরিস্থিতিতে ঠান্ডা মাথায় ম্যাচ বাড় করে নিয়ে আসেন বাংলাদেশি অধিনায়ক। এই ঘটনাকে অনেকেই জাফরের সাফল্য হিসাবে মনে করছেন।

ম্যাচ শেষে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের প্রশংসা করেছেন জাফর। টেকনিক্যাল দিক বাদ দিয়ে যে মানসিকতা দেখিয়ে তারা গোটা টুর্নামেন্টে ব্যাট করেছে তার প্রশংসা করেছেন তিনি। ১৮ বছর বয়সী অধিনায়ক আকবরের প্রশংসাও করেছেন তিনি। এর আগে অনুর্ধ ১৪ ও অনুর্ধ ১৬ দলেরও অধিনায়কত্ব করেছেন আকবর। ভবিষ্যতে আকবর বাংলাদেশের সিনিয়র জাতীয় দলের অধিনায়কত্বও করতে পারেন বলে মনে করেন ওয়াসিম জাফর। 

প্রসঙ্গত, ওয়াসিম জাফর ১৫০টির-ও বেশি রঞ্জি ম্যাচ খেলেছেন। রঞ্জি ট্রফির ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় হিসাবে ১২০০০ রান করেছেন তিনি। ৪১ বছর বয়সী প্রাক্তন ভারতীয় ওপেনার ১৯৯৬ সালে প্রথমবার প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেট খেলতে নেমেছিলেন।