ভারতকে ইতিমধ্যেই একটি বিশ্বকাপ জেতানো এবং প্রথমবার টেস্টে এক নম্বর দল করা গ্যারি কার্স্টেন থেকে মাহেলা জয়বর্ধনে, বীরেন্দ্র সেওয়াগ, রবিন সিংদের মতো অনেক বড় নামই ভারতীয় দলের পরবর্তী প্রধান কোচ হওয়ার জন্য আবেদন করেছেন। আগামী কয়েকদিনে হয়তো আরও বেশ কিছু বড় নাম এই তালিকায় যোগ দেবেন। কিন্তু, ক্যারিবিয়ান সফরে যাওয়ার আগে রবি শাস্ত্রীকে নিয়ে তাঁর প্রেম গোপন করলেন না ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

এদিন মুম্বইয়ে সাংবাদিক সম্মেলেন তিনি সাফ জানালেন, রবি শাস্ত্রীই যদি ভারতের কোচ হিসেবে থেকে যান, তাহলেই তিনি খুশি হবেন। কারণ তাঁর মতে রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে ভারতীয় দলের সব সদস্যরই খুব সহজ সম্পর্ক। বন্ধুর মতো মিশতে পারেন রবি। তবে বিষয়টি সবটাই সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন ক্রিকেট পরামর্শদাতা কমিটির উপর নির্ভর করছে। তবে তাঁরা অধিনায়কের মত নিলে ভোট যে রবিই পাবেন সেই বিষয়টি স্পষ্ট করে দিয়েছেন বিরাট।

তবে ক্রিকেট পরামর্শদাতা কমিটির হাতে কতদূর কোচ বাছাইয়ের অধিকার রয়েছে , সেই নিয়েই প্রশ্ন রয়েছে। এর আগে কোচ হিসেবে যথেষ্ট সফল হলেও তাদের বাছা কোচ অনিল কুম্বলে-কে সরে যেতে হয়েছিল বিরাট কোহলির আপত্তিতেই। তাঁর আবদার মেনেই রবি শাস্ত্রীকে কোচ করা হয়েছিল। তারপর থেকে বারেবারে সমর্থকদের অসন্তোষের নিশানা হয়েছেন শাস্ত্রী।

ভারতের বিশ্বকাপ বিদায়ের পরও শাস্ত্রীকে সরানোর দাবি উঠেছে। দাবি অবশ্য উঠেছে বিরাট কোহলিকে একদিননের দলের অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে সেই দায়িত্ব রোহিত শর্মাকে দেওয়ারও। কিন্তু অধিনায়কের পদে এখনও কোনও বদল দেখা যায়নি। বিরাটের কথা থেকে স্পষ্ট কোচের পদেও বদল হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। দলের অন্দরের খবর সব সিদ্ধান্তই বিরাট-শাস্ত্রী জুটিই নেন। কারোর কথা শোনা হয় না। আগামী কয়েক বছরও সম্ভবত এই জুটিই রাজ করবেন ভারতীয় ক্রিকেটে।