আপাতত স্বস্তি পেলেন বিজেপি নেতা অর্জুন সিংহ। সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দিল, ২২ থেকে ২৮ মে-র মধ্যে গ্রেফতার করা যাবে না ব্যারাকপুরের বিজেপি প্রার্থীকে। গত ২০ তারিখ অর্জুনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছিল রাজ্য সরকার। এলাকায় গণ্ডগোল পাকানোর অভিযোগে অভিযোগ দায়ের হয় অর্জুনের বিরুদ্ধে।

এই অভিযোগ দায়েরের পরেই গ্রেফতারের আশঙ্কায় সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন অর্জুন সিংহ। সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতেই এই নির্দেশ দিয়েছে শীর্ষ আদালত। 

ইতিমধ্যেই বিজেপি নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গীয় চাঞ্চল্যকর  অভিযোগ করে বলেছেন , অর্জুন সিংহকে গ্রেফাতর এমনকী খুনের চক্রান্ত করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

গত রবিবার উপনির্বাচনের দিন ভাটপাড়ায় প্রবল অশান্তি ছড়ায়। সেই অশান্তির জের এখনও অব্যাহত। এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই অর্জুনের দিকে আঙুল তুলেছে শাসক দল। ভোটের দিন অর্জুনকে নিজেদের হেফাজতেও নিতে গিয়েছিল পুলিশ। অভিযোগ, তখন তাঁকে আড়াল করে সেখান থেকে সরিয়ে নিয়ে যায় কেন্দ্রীয় বাহিনী।

এই অবস্থায় গ্রেফতারি থেকে বাঁচতেই শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন অর্জুন। আপাতত এক সপ্তাহের জন্য স্বস্তি পেলেন তিনি। কারণ সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দিয়েছে এই এক সপ্তাহ বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ করতে পাারবে না পুলিশ। তৃণমূল জেলা সভাপতি এবং খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক অবশ্য মঙ্গলবারও হুঁশিয়ারির সুরে বলেছেন, অর্জুনকে গ্রেফতার হতেই হবে।