রাজ্যে  বেনজির বিশৃঙ্খলা, মূর্তি ভাঙারল প্রতিবাদ করে পথে নামল বামেরা। এদিন সকালে কলেজ স্কোয়ারে বিদ্যাাসগারের মূর্তির পাদদেশ থেকে বের হয়ে এই মিছিল শেষ হয় বেথুন কলেজের সামনে। মিছিলের পুরোভাগে ছিলেন সিপিআইএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি, বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু, পলিটব্যুরোর অন্যান্য সদস্যরা। 


গত মঙ্গলবার নজিরবিহীন নৈরাজ্য তৈরি হয় কলেজ স্ট্রিট চত্বরে। অমিত শাহকে ঘিরে তুমুল উত্তেজনা শেষ হয় তুমুল হাতাহাতিতে। ভেঙে দেওয়া হয় বিদ্যাসাগরর কলেজে বিদ্যাসাগরের মূর্তি। 

 এই ঘটনার বিরুদ্ধে সরব হয় আপামর জনতা। বিদ্বজনরা নৈরাজ্যের নিন্দায় মুখর হন। সেই নৈরাজ্যকে জবাব দিতেই এদিন পথে নামল বামেরা। 

বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু মিছিলের শেষে দ্ব্যর্থহীম ভাষায় গোটা ঘটনারর নিন্দে করেন। মনে করিয়ে দেন সেদিনের মেট্রোপলিটন ইন্সটটিটিউট তথা আজকের বিদ্যাসাগর কলেজের ইতিহাস। তাঁর মখে উঠে আসে বেথুন কলেজের গৌরবেরর কথাও।


প্রসঙ্গত জলপাইগুড়িতে ধিক্কার মিছিল করবে জলপাইগুড়ি জেলা বামফ্রন্ট। জেলা বামফ্রন্টের আহ্বায়ক সলিল আচার্য জানান, বুধবার বিকেল ৫.৩০ মিনিটে ডিবিসি রোড থেকে এই মিছিল বের হবে । মিছিলে সর্বস্তরের মানুষকে অংশ নেওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছেন তিনি।