দল চমক দিয়েছে গোটা দেশকে। নিরাঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতার সঙ্গে আরও একবার লালকেল্লা অভিযান সম্পন্ন করেছে বিজেপি। চমকে দিয়েছেন তিনিও। মেদিনীপুরের তৃনমূল প্রার্থী মানস ভুঁইয়াকে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত পরাজিত করেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার রাত্রে জয়ের খবর নিশ্চিত হওয়ার পরেই, শুক্রবার সাংবাদিক সম্মেলন করলেন দিলীপ ঘোষ। ব্যালট বক্স তাঁর হয়ে আগেই জবাব দিয়েছে, এবার হাসিমুখে বিরোধীদের দিকে কামান দাগলেন তিনি। দেখে নেওয়া যাক কী বললেন তিনিঃ

  • কংগ্রেস সেই আইসিউতেই আছে। স্রেফ হাত পা নাড়ছে। আঞ্চলিক দলগুলি গুরুত্বহীন হয়ে গিয়েছে।
  • কলকাতায় এসে  হাত ধরে নাচানাচির নাটক দেখেছি, দলে একজনও সাংসদ না থাকা সত্ত্বেও অনেকে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন। তাদের স্বপ্ন অধরাই থেকে গিয়েছে। 
  • মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, চন্দ্রবাবু নাইডুর মতো যারা অতিসক্রিয় ছিলেন, জনতা তাঁদের আয়না দেখিয়ে দিয়েছে। 
  • এখন তাঁরা এই হারের কারণ খুঁজে মুখ বাঁচানোর চেষ্টা করছেন। সেন্ট্রাল ফোর্স, নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে মানুষকে ভুল বোঝাবার চেষ্টা করছেন।
  • বিজেপি যে আগাম অনুমান করেছিল, তা ঠিক বলে প্রমাণিত হয়েছিল। সিপিএম কংগ্রেসকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তৃণমূল ছত্রখান হয়ে যাচ্ছে। বাংলার মানুষ এতদিনে বিকল্প খুঁজে পেয়েছে।
  • যাঁরা গণতন্ত্র রক্ষায় আমাদের সাহায্য করেছেন তাঁদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি।  আমাদের সমস্ত জয়ী সাংসদদের আগামী কালের মধ্যে দিল্লি যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।