টানা দু বছর হুগলির সাংসদ ছিলেন তৃণমূলের রত্না দে নাগ। এবারও আশা করা হয়েছিল এই আসনে তিনিই জায়গা করে নেবেন। কিন্তু ফলাফল খেলা ঘুরিয়ে দিল। হুগলি পেল নতুন সাংসদ, বিজেপির প্রার্থী লকেট চট্টোপাধ্য়ায়কে। 

হুগলিতে বিজেপি জায়গা করে নিতেই কৃষকদের একাংশ সিঙ্গুরের সেই জমিতে শিল্পের দাবিতে রাস্তায় নামেন। বিশেষ করে বাম জমানায় যে কৃষকরা টাটাদের প্রস্তাবে রাজি হয়ে শিল্পের জন্য জমি দিয়েছিলেন তাঁরাই এদিন নতুন করে শিল্পের দাবিতে সরব হন। প্লোস্টার নিয়ে এদিন মিছিল করেন এই কৃষকরা। বেশ কয়েকজনকে বিজেপির পতাকা নিয়েও হাঁটতে দেখা যায়। 

কৃষকদের দাবি এই জমিগুলিতে নতুন করে শিল্প তৈরি করতে হবে। কৃষকদের ছেলেমেয়েরা যাতে ওই কারখানাগুলিতে কাজের সুযোগ পান সেই ব্যাপারেও সরব হন তাঁরা। মূলত সিঙ্গুরে শিল্প ও কর্মসংস্থানের দাবিতেই এই মিছিল করেন কৃষকরা। 

প্রসঙ্গত, কাল ফল প্রকাশের পরে সংবাদমাধ্যমের সামনে এই কেন্দ্রের জয়ী বিজেপি প্রার্থী সিঙ্গুর প্রসঙ্গ তোলেন। তিনি নিজেই জানান, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সিঙ্গুর থেকেই উঠেছিলেন। পতনও এখান থেকেই শুরু হবে।

লকেট আশ্বাস দেন তিনি সিঙ্গুরের দিকে নজর দেবেন এবং টাটা যাতে এসে শিল্প করে সেই দিকেও দেখবেন।