জয়ীর আসনে বসার সঙ্গে সঙ্গেই চৌকিদার তকমা ত্যাগ করলেন নরেন্দ্র মোদী। সারা দেশে গেরুয়া ঝড়। এবারের স্লোগান ছিল অবকি বার, ৩০০ পার। সেই মতোই ৫৪৩ টি আসনের মধ্যে গেরুয়া বাহিনী জয়ী হয়েছে ৩৪৭টি আসনে। অতএব এবারও সরকার গড়ছেন মোদী।

দিল্লির বিজেপি পার্টি অফিসের সদর দফতরে এখন চলছে গেরুয়া উচ্ছাস। সকাল থেকেই মোদীকে মহা স্বাগতম জানাতে প্রস্তুত ছিলেন দলের কর্মীরা। কিন্তু এরই মাঝে নামের থেকে চৌকিদার শব্দটি টুইটারে সরিয়ে দিলেন তিনি।

এবারের নির্বাচনী প্রচারে চৌকিদার শব্দটি যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ ছিল। দেশকে রক্ষা করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে নিজেদেরকে বার বার চৌকিদার হিসেবে মানুষের সামনে তুলে ধরেছিলেন মোদী শাহরা। মোদ্দা কথা এই চৌকিদার তকমা এবারে বিজেপির জয়ের অস্ত্র হিসেবে কাজ করেছে। কিন্তু জয় পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই এই তকমা ত্যাগ করলেন মোদী। তাঁর সঙ্গে দিলেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহও। 

এই চৌকিদার তকমা  নিয়েও বিরোধীরা বার বার চৌকিদার চোর হ্যায় বলে মোজীকে তোপ দেগেছেন। কিন্তু জয়ী হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কেন চৌকিদার নরেন্দ্র মোদী শুধু নরেন্দ্র মোদী হয়ে গেল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।