হরর ছবি দেখে ভয় না লাগলে সেই ছবি দেখার মানে কী! আমরা এমনটাই বলে থাকি। কিন্তু তা বলে মৃত্যু! থাইল্যান্ডে ঘটে গেল এমনই এক ঘটনা। অ্যানাবেল কামস হোম ছবিটি দেখতে গিয়ে ভয় পেয়ে মৃত্যু হল এক ব্যক্তির। 

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, ৭৭ বছর বয়সি এক ব্রিটিশ ব্যক্তি সিনেমা হলে ছবিটি দেখতে গিয়েছিলেন। ব্যক্তির নাম বার্নার্ড চ্যানিং। বার্নার্ড থাইল্যান্ডে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন। সেই সময়েই তিনি ঠিক করেন যে অ্যানাবেল কামস হোম দেখতে যাবেন। কিন্তু তার পরেই এই ভূতের ছবি দেখতে গিয়ে মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে যায়। 

বার্নার্ড চ্যানিং-এর পাশে বসা মহিলা প্রথমে টের পাননি, তাঁর পাশের ব্যক্তি মৃত। সিনেমা হলে আলো জলার পরে তিনি দেখেন  পাশে মৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছেন এক ব্যক্তি। সঙ্গে সঙ্গে চিৎকার করে সাহায্য চান মহিলা। কিন্তু হলের মধ্যেই জানিয়ে দেওয়া হয়, মৃত্যু হয়েছে ওই বৃদ্ধের। হলের এমার্জেন্সি সার্ভিস সঙ্গে সঙ্গে সেখানে এসে বার্নার্ডের দেহ কাপড়ে মুড়িয়ে অ্যাম্বুলেন্সে তুলে নেন। মৃত্যুর কারণ জানতে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। 

এই ঘটনার পরে হলে উপস্থিত সকলেই বেশ ভয় পেয়ে যান। চ্যানিং-এর পাশে বসা মহিলাও ভীত হয়ে পড়েন। প্রসঙ্গত, ২০১৬-য় কনজিউরিং ২ চলার সময়েও অন্ধ্রপ্রদেশে ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়। জানা যায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েই মৃত্যু হয়েছিল তাঁর।