বিগ বিস। এক কৌশলি গেম শো। যা এক দশকেরও বেশি সময় ধরে ভারতীয় ছোটপর্দার বিনোদনে এক নম্বর রিয়্যালিটি শো-এর তকমা ছিনিয়ে নিয়েছে। এই খেলার মূল বিষয়টি হল নিজেকে টিকিয়ে রাখার জন্য সমানে কৌশল তৈরি করে যাওয়া এবং এর জন্য যতটা কাদা ছেটাছেটি-র খেলায় নামা যায়- ততটাই পর্যন্ত যাওয়া। বলতে গেলে খেউড়ের এক নয়া সংস্করণ। যা ভারতীয় ছোট পর্দার দর্শকদের কাছে চরম জনপ্রিয়। 

বিগ বস ১৩-এর একাধিক এপিসোডে বারবার সামনে এসেছে লবিবাজি থেকে শুরু করে মারপিট, প্রেম-ভালোবাসা। দর্শকরা তা তাড়িয়ে তাড়িয়ে উপভোগও করেছেন। আর শো-এর রেটিং পেয়েছে আলাদা গতি। বিগ বস ১৩-র শুরু থেকেই অনেকগুলি নাম সামনে উঠে এসেছিল- যাদের উপরে লোকে বাজি রেখেছিলেন চ্যাম্পিয়নের। এই নামগুলির মধ্যে সবচেয়ে উজ্জ্বল নামটি ছিস সিদ্ধার্থ শুক্লার। যিনি একদম শুরু থেকেই দর্শকদের নয়নের মণি হিসাবে চিহ্নিত হয়েছিলেন। 

ফি এপিসোডের পরই সিদ্ধার্থ শুক্লার নামে টুইটারে হ্যাসট্যাগ ট্রেন্ড করতে দেখা গিয়েছে। এহেন ব্যক্তি-র উপরেই শেষমেশ ভরসা রেখেছে বিগ বস । আর সেই কারণে এই জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো-এর ১৩ নম্বর এপিসোডে সিদ্ধার্থ শুক্লা-কে জয়ী হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে। শনিবার ছিল বিগ বস ১৩-র গ্র্যান্ড ফিনালে। যেখানে চূড়ান্ত পর্যায়ের প্রতিযোগীদের মধ্যে সিদ্ধার্থ ছাড়াও ছিলেন পরস ছাবরা, আরতি সিং, রশ্মি দেশাই, শেহনাজ গিল, অসীম রিয়াজ। 

 

 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

#Repost @beingsalmankhan with @make_repost ・・・ Grand Finale #BiggBoss

A post shared by Colors TV (@colorstv) on Feb 15, 2020 at 7:00am PST

ফাইনাল শো-এর লাইভ টেলিকাস্ট শুরু হতেই দেখা যায় বিগ বস-এর সঞ্চালক সলমন খানকে বিগ বস-এর বাড়িতে প্রবেশ করতে। বাড়িতে প্রবেশের পরই নাটকীয়তার সঙ্গে সলমন খান প্রতিটি প্রতিযোগীকে ১০ লক্ষ টাকা নিয়ে শো ছেড়ে যাওয়ার প্রস্তাব দেন। সিদ্ধান্ত জানানোর জন্য সিদ্ধার্থদের ৩০ সেকেন্ড সময় দিয়েছিলেন সলমন। পরস ছাবরা ছাড়া বাকি সকলেই ফাইনালের চূড়ান্ত লড়াইয়ে থাকার সিদ্ধান্ত নেন। পরস ছাবরা ১০ লক্ষ টাকা নিয়ে বিগ বস-এর বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। 

চূড়ান্ত লড়াই শুরু হতেই জমে ওঠে নাটক। একে একে ছিটকে যান আরতি সিং, রশ্মি দেশাই, শেহনাজ গিল, অসীম রিয়াজ। শুধু টিকে থাকেন সিদ্ধার্থ শুক্লা। যাকে বিগ বস ১৩-এর জয়ী ঘোষণা করা হয়। 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

The trophy has come home!

A post shared by Sidharth Shukla (@realsidharthshukla) on Feb 15, 2020 at 1:42pm PST

১০ লক্ষ টাকা নিয়ে বিগ বস-এর বাড়ি ছাড়া নিয়ে পরস ছাবরা-র কোনও অনুশোচনা ছিল না। তিনি সাফ জানান, 'নিজের ইচ্ছে-তেই এই বাড়িতে ঢুকেছিলাম, আর চলেও যাচ্ছি নিজের ইচ্ছে-তে। ' যদিও, পরস ছাবরা এখন কালারস-এর সঙ্গে আরও একটি রিয়্যালিটি শো-এ অংশ নেবেন। এই শো-এর নাম মুঝসে সাধি করোগি। এটি এক ধরনের মেট্রিমোনিয়াল রিয়্যালিটি শো। এতে পরস ছাড়াও শেহনাজ গিল অংশ নিতে চলেছেন। ইতিমধ্যেই এই শো-এর প্রোমোও আত্মপ্রকাশ করেছে। 

বিগ বস ১৩-র সঞ্চালনা নিয়ে সলমন মোট ১০টি সেশন-এ সঞ্চালনার দায়িত্ব পালন করলেন। ভারতীয় সংস্করণের বিগ বস-এর প্রথম সঞ্চালক ছিলেন অমিতাভ বচ্চন। তারপরে এর সঞ্চালক হয়েছিলেন মূল বিগ বস-এর চ্যাম্পিয়ন শিল্পা শেঠি। এবং তার পরে সঞ্চালক হয়েছিলেন আরশাদ ওয়ার্সি। এর পর থেকেই টানা সঞ্চালনার কাজ করছেন সলমন। কিন্তু, বিগ বস ১৪ এলে তাতে সল্লু সঞ্চালনা করবেন কি না তা নিয়ে বহুদিন আগে থেকেই গুঞ্জন শুরু হয়েছে। কারণ বিগ বস ১৩-তেই এমনকিছু পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিলে যে সঞ্চালনার দায়িত্ব ছাড়া প্রায় সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছিলেন সলমন। যদিও, কারোর কারোর দাবি ওটা ছিল বিগ বস কর্তৃপক্ষ এবং সলমন খান-এর পাবলিক স্টান্ট। 

>