শনিবার হয়ে গেল ইস্টার্ন ইন্ডিয়া মোশন পিকচারস এবং কালচারাল কনফেডারেশনের প্রথম বৈঠক। এদিন  প্রধান অতিথি হিসেবে বৈঠকে আমন্ত্রিত ছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও আসানসোল কেন্দ্র থেকে নির্বাচিত সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। 

২৩জুন ফেডারেশন অফ সিনে টেকনিশিয়ানস অ্যান্ড ওয়ার্কার্স অফ ইস্টার্ন ইন্ডিয়াক মিটিং হয়েছিল। তৃণমূলের প্রভাব থাকা সত্ত্বেও টেকনিশিয়ানদের বেশ কিছু সমস্যা সমাধান না হওয়া অবস্থাতেই পড়েছিল। তা নিয়েই বেশ চাপান উতর চলছে টলিপাড়ায়। আর সেই সুযোগ টলিপাড়াতেও নিজেদের প্রভাব বিস্তার‌ করতে চাইছে বিজেপি। ২১ জুন টলিপাড়ায় বিনোদন জগতেও পাকাপাকি জায়গা করে নেয় গেরুয়া বাহিনী। 

শনিবার বিজেপি ঘনিষ্ঠ ইস্টার্ন ইন্ডিয়া মোশন  পিকচারস এবং কালচারাল কনফেডারেশনের প্রথম বৈঠকের নেতৃত্বে ছিলেন ডিজাইনার অগ্নিমিত্রা পাল। এদিন বৈঠকে লকেট চট্টোপাধ্যায়ও আমন্ত্রিত ছিলেন। কিন্তু তিনি আসেননি। সম্প্রকি টলিপাড়ার এই প্রসঙ্গে লকেট জানিয়েছিলেন ইস্টার্ন ইন্ডিয়া মোশন  পিকচারস এবং কালচারাল কনফেডারেশন সংগঠনের মূল লক্ষ্যই হল টেকনিশিয়ানদের যাবতীয় সমস্যার সমাধান করা। যদিও অগ্নিমিত্রা এই সংগঠনকে রাজনৈতিক সংগঠন বলছেন না। 

তিনি বলছেন, এটি রাজনৈতিক সংগঠন নয়। যে কোনও  মানুষই সাহায্য চাইলেই তাঁকে সাহায্য করা হবে। আমাদের গাইডলাইনে তাই ঠিক করা হয়েছে। অনেকে কাজ পান না কারণ তারা তোষণ করতে পারেন না। তাঁদের পাশে দাঁড়াবে এই সংগঠনয়। 

যদিও তিনি জানিয়েছেন, সংগঠনটি রাজনৈতিক না হলেও বিজেপি একে এনডোর্স করছে। পেমেন্টের সমস্যা শ্যুটিং-এ লোকেশনের সমস্যা ইত্যাদি বিষয়ে এই সংগঠন নজর দেবে বলে জানিয়েছেন অগ্নিমিত্রা।