জামাই ষষ্ঠী মানেই বাঙালির পেট পুজোর আরও একটা ছুতো। শুধু জামাইয়ের নামে হেঁশেলে হাঁড়ি চাপালেও, বাড়ির সকলেই এদিন রসনা তৃপ্তির আশায় অপেক্ষমান থাকে। তাই বাঙালির এমন উৎসবে বাদ নেই তারকারাও। 

টেলি তারকা অঙ্কিতা মজুমদারর ও সৌমিত্র পালের বিয়ে হয় এ বছর জানুয়ারিতে।  অতএব এবারই প্রথম জামাই ষষ্ঠী পালন করতে অঙ্কিতার সঙ্গে শ্বশুরবাড়ি যাবেন সৌমিত্র। 

ছোট থেকে বাবা-মার সঙ্গে মামার বাড়ি গিয়ে জমিয়ে খাওয়া দাওয়া করতেন। জামাই ষষ্ঠী বলতে সেই সময় এটুকুই বুঝতেন অঙ্কিতা। কিন্তু তিনি একটা মাত্র মেয়ে। আর এবারই প্রথম জামাই ষষ্ঠী। তাই তাঁর মা ঠিক করেছেন জামাইকে প্রথম জামাই ষষ্ঠীতে সারপ্রাইজ দেবেন। অঙ্কিতা যদিও জানান, "সৌমিত্র জামাই ষষ্ঠীর ব্যাপারে তেমন কিছুই জানে না। কিন্তু আমি একমাত্র মেয়ে। তাই মা অনেক কিছু প্ল্যান করেছে। যদিও মেনুতে কী থাকবে পুরোটাই এখনও সারপ্রাইজ।" 

অঙ্কিতা জানিয়েছেন, কাল সকালে শ্যুটিং সেরে সৌমিত্রের সঙ্গে দক্ষিণ কলকাতায় বাপের বাড়ি যাবেন তিনি। পেটের কথা মাথায় রেখে কম মশলাদার খাবারই রাঁধবেন অঙ্কিতার মা। জানান জড়োয়ার ঝুমকোর অভিনেত্রী। অঙ্কিতার কথায়, "বেশি মশলাদার খাবার মা রান্না করবে না। কিন্তু আইটেমে চিকেন, ইলিশ মাছ রাখবে। এছাড়া পাঁচ রকমের ভাজা, মিষ্টি এসব তো থাকবেই। "

তবে জামাইয়েরও শ্বশুর শাশুড়িকে সারপ্রাইজ দেওয়ার প্ল্যান রয়েছে। "আমরা মা-এর জন্য একটা শাড়ি নিয়ে যাব আর বাবার জন্য একটা টি-শার্ট।" জানান অঙ্কিতা। 

প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে অঙ্কিতা জি-বাংলা ফুটবল লিগ-এ চন্দননগর চ্যাম্পিয়নস দলের ব্র্যান্জ অ্যাম্বাসাডর হিসেবে কাজ করছেন। জড়োয়ার ঝুমকো ধারাবাহিকেও অভিনয় করেছিলেন অঙ্কিতা।