লকডাউনে একের পর এক তারকার আত্মঘাতীর খবর সামনে উঠে আসতে দেখা গিয়েছে। কাউকে গ্রাস করেছিল অবসাদ, কেউ আবার ডুবে ছিল কাজের সন্ধানে। অর্থের যোগান না থাকায় অনেকেই আত্মঘাতীর পথকেই বেছেনিয়েছিল। সেই একই ছবি আবারও ধরা পড়ল দক্ষিণে। দক্ষিণের জনপ্রিয় অভিনেতা ইন্দিরা কুমারকে মৃত অবস্থায় বন্দুর বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয় শনিবার সকালে। 

আরও পড়ুন- শারীরিক নির্যাতন থেকেই আত্মহত্যা, জিয়ার 'নিঃশব্দ' মৃত্যুতে শিউরে উঠেছিল গোটা বলি ইন্ডাস্ট্রি

শুক্রবার চেন্নাইতে বন্ধুর বাড়ি গিয়েছিলেন তিনি। সেখানেই রাতে থাকার পরিকল্পনা ছিল। শনিবার সকালে পুলিশ অভিনেতার বন্ধুর থেকে ফোন পেয়ে বাড়িতে হাজির হয়। সেখানেই মৃত অবস্থায় পাওয়া যায় ইন্দিরা কুমারকে। প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান আত্মঘাতী হয়েছে তিনি। যদিও মেলেনি কোনও সুইসাইড নোট বা কোনও ম্যাসেজ। যার ফলে মৃত্যুর কারণ ক্ষতিয়ে দেখছে পুলিশ। 

কাছের পরিচিতদের কথায়, লকডাউনের পর ছন্দে ফেরার চেষ্টা ছিলেন তিনি। কাজ খুঁজছিলেন একের পর এক। কিন্তু সেভাবে কোনও কাজ মিলছিল না। বাড়িতে স্ত্রী, সন্তানদের নিয়ে বেজায় চিন্তায় দিন কাটছিল তাঁর। যার ফলে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন অভিনেতা বলেই ধারনা অনেকের। তবে রহস্যমৃত্যুর জেরে কোনও সম্ভাবনাই উড়িয়ে দিতে চাইছে না পুলিশ।