বিচ্ছেদ হয়েছিল ২০১৩ সালে। কিন্তু বিচ্ছেদের পরেও নিজেদের মধ্যে সুসম্পর্ক বজায় রেখেছেন হৃতিক রোশন ও সুজান খান। নিজেদের সন্তানদের সূত্রে প্রায়ই দেখাও করেন দুজনে। প্রায়ই একসঙ্গে নৈশভোজেও যান তাঁরা। এমনকী কঙ্গনা হৃতিকের দিকে একের পরে এক অভিযোগ আনার পরেও সুজান প্রাক্তন স্বামীর পাশেই বারবার দাঁড়িয়েছেন। 

সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্য়মের কাছে হৃতিক কথা বলেন সুজান সম্পর্কে। হৃতিক বলেন, ভালোবাসা একটি মন্দিরের মতো। এই মন্দিরে দুটি স্তম্ভ থাকে। স্তম্ভ দুটি পরস্পরের থেকে যত দূরে থাকে ততই মন্দিরটি মজবুত হয়। পরস্পরের ব্যক্তিগত মতামতকে শ্রদ্ধা করা উচিত। নিজের আবেগ নিজেকে সামলানোর মতো ক্ষমতা থাকা দরকার। অন্যদিক থেকে তেমন অভিব্যক্তি এলে তাকে স্বাগত জানালেও, কোনও কিছু দাবি করা ঠিক নয়। 

আরও পড়ুনঃ সুনয়নার প্রেমিক বিবাহিত! মুসলিম বলে নয়, এই নিয়েই তুমুল জটিলতা রোশন পরিবারে

হৃতিক সুজানের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক নিয়ে আরও বলেন, এটা খুব সুন্দর সম্পর্ক। আমাদের বাচ্চারা রয়েছে, আমরা বন্ধুর মতো রয়েছি। পুরোটাই জ্ঞানের ব্যপার। তবে একটা জিনিস বুঝে গিয়েছি, ভালোবাসা কখনও ঘৃণায় পরিণত হতে পারে না। এটা যদি ঘৃণায় পরিণত হয়, তা হলে এটা কোনও দিন ভালোবাসা ছিলই না। ভালোবাসার বিপরীতেও ভালোবাসাও থাকে। এটা একবার বুঝে গেলেই আবার ভালোবাসায় ফিরে যাওয়া যায়। 

প্রসঙ্গত,কিছুদিন আগেই হৃতিকের দিদি সুনয়না রোশন পোস্ট করেন, পরিবারে তাঁর উপরে অত্যাচার চলে। তিনি নরক বাস করছেন। মুসলিম ছেলেকে ভালোবাসায় তাঁর উপরে দিনের পর দিন ধরে অত্যাচার চলছে বলে দাবি করেন তিনি। এই দুঃসময়েও হৃতিকের পাশে দাঁড়িয়েছে সুজান।  হৃতিক এই মুহূর্তে সুপার ৩০ ছবি নিয়ে ব্যস্ত। আগামী ১২জুলাই ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে।