সত্যিই কি ধর্মের জন্যই অভিনয় জগতে ইতি টেনেছেন জাইরা ওয়াসিম! একটা ছোট্ট ভয়েস টেপই এই প্রশ্নকে উসকে দিল।

দুদিন আগেই দঙ্গল খ্য়াত জাইরা একটি টুইট করে জানান তিনি আর অভিনয় করবেন না। অভিনয় জগতে থাকলে আল্লার সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক, বিশ্বাসে ক্ষয় হবে। এই  নিয়ে একটি লম্বা পোস্ট করেন জাইরা। কিন্তু এক সংবাদমাধ্যমের  প্রতিবেদন অনুযায়ী, জাইরা রীতিমকো এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য় হয়েছেন। 

সংবাদমাধ্যমের কাছে একটি ভয়েস টেপ আসে, যেখানে শোনা যাচ্ছে কাশ্মীরের এক ধর্মগুরু বলছেন, জাইরা ওয়াসিম ও কাশ্মীরের বক্সিং চ্যাম্পিয়ন তাজামুল এই দুজন কাশ্মীরের লজ্জা। কাশ্মীরের এই দুই ছেলে মেয়েই ইসলামের সীমা লঙ্ঘন করছে। 
ওই ধর্মগুরুকে বলতে শোনা যাচ্ছে যে কাশ্মীরের কোনও ছেলেমেয়েরই বলিউডে বিনোদন জগতে যাওয়া উচিত নয়। এমনকী জাইরা ও তাজামুলের পরিবারেরও নিন্দা করেছেন ওই ব্যক্তি। 

সংবাদমাধ্যমের ওই প্রতিবেদনটি থেকেই জানা যাচ্ছে, মৌলবাদীদের চাপ এমন পর্যায়ে পৌঁছে গিয়েছিল যে জাইরার পরিবারের লোকজন বাড়িক বাইরেও বেরোতে পারছিলেন না। এমনকী মানুষজনের সঙ্গে দেখা সাক্ষাৎ করাও বন্ধ করে দিয়েছিলেন জাইরা। এই চাপেই জাইরা এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে।   

প্রসঙ্গত বলিউডে এখনো পর্যন্ত দঙ্গল এবং সিক্রেট সুপারস্টার এই দুই ছবিতে অভিনয় করেছেন জায়রা ওয়াসিম। দঙ্গল ছবির জন্য জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিলেন জায়রা।