অমিত শাহের রোড শো-কে কেন্দ্র করে কলকাতায় মঙ্গলবার ধুন্ধুমার চলে। ভাঙা হয় ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্য়াসাগরের মূর্তিও। অভিযোগের তীর বিজেপি-র কর্মী সমর্থকদের দিকে। যদিও  অমিত শাহ বুধবার বলেছেন, বিদ্যাসাগরের মূর্তি তৃণমূলের কমীর্রাই ঘটেছে।

ঘটনার তীব্র নিন্দা চলছে বিভিন্ন মহলে। বিজেপিকে একহাত নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছেড়ে কথা না বলার হুমকি দিয়েছেন। এদিন নৈরাজ্য এমন জায়গায় পৌঁছয় যে ঘটনা আর এরাজ্যের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। দেশের অন্যান্য রাজ্যের মানুষও ঘটনার নিন্দা করছেন। বাংলার এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন পরিচালক মহেশ ভাটও। 

মহেশ ভাট টুইট করে লেখেন, বিদ্যাসাগরকে আক্রমণ করার অর্থ আসলে বাংলা ভাষার উপরে আক্রমণ। বর্ণপরিচয়ের মাধ্যমে সহজ সরল ভাবে বাংলা ভাষা শেখার ব্যবস্থা তিনিই করেছিলেন। 

ঘটনায় এই রাজ্যের বিদ্বজনেরাও সরব হয়েছেন। প্রসঙ্গত, এদিন অমিত শাহের রোড শো ঘিরে সমস্য়ার সূত্রপাত। তৃণমূলের অভিযোগ বিজেপির লোক মিছিলের মধ্যে থেকেই পাথর ছোড়া শুরু করে বিদ্যাসাগর কলেজ লক্ষ্য করে। ভাঙে বিদ্য়াসাগরের মূর্তি। বিজেপির পাল্টা অভিযোগ তৃণমূলের কর্মী সমর্থকরা বাইরে থেকে ইট পাথর ছোড়া শুরু করে মিছিল লক্ষ্য করে। এমনকী, মিছিল শুরুর আগে তাঁরা পোস্টারও ছি়ড়ে ফেলে।