চার-হাত এক করলেন নুসরত জাহান। বাংলা ছবির অভিনেত্রী তথা সাংসদ এখন সরকারিভাবে বিবাহিত। তুরস্কের বোদরুম শহরে ১৯ জুন ব্যবসায়ী নিখিল জৈন-এর সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন নুসরত। বিয়ের সেই ছবি টুইটারে পোস্টও করেন তিনি। লাল লেহেঙ্গা-চোলিতে নুসরত কনে হিসাবে সেজেছিলেন। স্বামী নিখিল জৈনের পরণে ছিল সাদা রঙের শেরওয়ানি এবং মাথায় পাগড়ি।  

লোকসভা নির্বাচনের পরই বিয়ের কথা ঘোষণা করেছিলেন নুসরত জাহান। ইনস্টাগ্রামে বাগদানের আংটি-রও ছবি দেন তিনি। জানা যায়, জুন মাসের ১৯ তারিখের বিয়ের দিন ঠিক করে রেখেছিলেন তিনি ও নিখিল জৈন। যদিও, চলতি বছরের শুরুতেই বিয়ের অনুষ্ঠানটি করার চেষ্টায় ছিলেন দু'জনে। লোকসভা নির্বাচনে নুসরত প্রার্থী হওয়ায় সেই পরিকল্পনা পিছোতে হয়। এরপরই ১৯ জুন-এর তারিখটা ঠিক করা হয়েছিল। 

জানা গিয়েছে, ৪ জুলাই কলকাতায় এক মেগা রিসেপশন দিচ্ছেন নুসরত ও নিখিল। সেই অনুষ্ঠানে টলিউডের তাবড় তাবড় সেলিব্রিটিরা যেমন উপস্থিত থাকবেন, তেমনি রাজনৈতিক মহলে কেষ্ট-বিষ্টুদেরও উপস্থিত থাকার কথা এই অনুষ্ঠানে। ২৫ তারিখের আগেই দেশে ফেরার কথা নুসরত জাহান ও নিখিল জৈনের। ২৫ জুন সংসদে আবার শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান রয়েছে তাঁর। বিয়ে সেরে নুসরত সরাসরি দিল্লি-তে আসবেন না কলকাতা হয়ে ফের দিল্লি যাবেন, তা নিয়ে এখনও কোনও চূড়ান্ত খবর নেই। 

নুসরতের বিয়েতে বিশেষ অতিথি ছিলেন তাঁর অভিনয় জগতের বান্ধবী মিমি চক্রবর্তী ও তনুশ্রী চক্রবর্তী। মিমিও এবার লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের টিকিটে প্রার্থী হয়েছিলেন। তিনি যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে সাংসদ হয়েছেন। যা খবর তাতে মিমি তুরস্ক থেকে কলকাতাতেই ফিরছেন এবং ২৫ তারিখের আগে দিল্লিতে পা রাখবেন। 

লোকসভা নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর থেকেই নুসরত ও মিমি-কে নিয়ে প্রবল আগ্রহ তৈরি হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। কারণ, সতেরোতম লোকসভায় যে সেলিব্রিটিরা জায়গা করে নিয়েছেন তাঁদের মধ্যে নুসরত ও মিমি  অন্যতম।