সিঁদুর পরায় ফতোয়া জারি হয়েছিল  নুসরত জাহানের বিরুদ্ধে। কিন্তু সে সবের তোয়াক্কা না করে তিনি আজ বৃহস্পতিবার ইসকনের রথযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন। প্রতিবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতেই উদ্বোধন হয় ইসকনের রথযাত্রা। এবার তাঁর সঙ্গে বিশেষ অতিথি হিসেবে আমন্ত্রিত ছিলেন নুসরত জাহান। মমতার সঙ্গে তাঁকে দড়ি টানতেও দেখা গেল। সঙ্গে ছিলেন স্বামী নিখিল জৈন। 

এদিন ইসকনের রথযাত্রা শেষে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে নুসরত বলেন, আমি আমার ধর্ম কী , তা জানি। মুসলিম হয়ে জন্মেছিলাম, তা-ই আছি। তবে অন্য ধর্মকেও সম্মান করি। এটা বিশ্বাসের ব্যাপার। আপনাকে মন থেকে তা বিশ্বাস করে নিতে হবে। 

প্রসঙ্গত, হিন্দু ছেলেকে বিয়ে করে ও সংসদে সিঁদুর ও চূড়া পরে যাওয়া ফতোয়ার শিকার হয়েছিলেন নুসরত জাহান। তাঁকে সমালোচনা করে একজন ইমাম বলেন, ইসলামে একজন মুসলিমের শুধু একজন মুসলিমকেই বিয়ে করার অধিকার আছে। এমনকী ইমাম এও বলেছেন, নুসরত একজন অভিনেত্রী। অভিনেত্রীরা ধর্ম মানেন না। যা ইচ্ছা তা করেন।

এর জবাবেও তিনি বলেন, ভারত সকলকে নিয়ে। জাত ধর্ম ভেদাভেদের উর্ধ্বে যে ভারত, আমি সেই ভারতের প্রতিনিধিত্ব করি। আমি সমস্ত ধর্মকে সম্মান করি। আমি এখনও মুসলিমই আছি। আর আমি কী পরব সে ব্যাপারে অন্য কারও মন্তব্য করাই উচিত নয়। বিশ্বাস পোশাকের উপরে। বিশ্বাস মানে সমস্ত ধর্মেরই সুশিক্ষাগুলিকে গ্রহণ করে তা পালন করা। 

প্রসঙ্গত, আজ বৃহস্পতিবার কলকাতার আইটিসি রয়্যালে নুসরত জাহান ও নিখিল জৈনের গ্র্যান্ড রিসেপশন। এদিন রাজনীতির জগতের ও টলিপাড়ার অনেক তারকারাই উপস্থিত থাকবেন এই রিসেপশনে।