তুরষ্কের বোদরুম শহরে রাজকীয় কায়দায় বিয়ে সেরেছেন নুসরত জাহান রুহি জৈন। একেবারে স্বপ্নের মতো বিয়ে সেরে এসে আলিপুরের নতুন ফ্ল্যাটে বাসা বেঁধেছেন নিখিল জৈন ও নুসরত জাহান। আজ শুক্রবার বিয়ের আসর থেকেই আরও কিছু ছবি শেয়ার করে নুসরত বুঝিয়ে দিলেন বহুদিন ধরে লাল পোশাকে বিয়ের স্বপ্ন দেখেছিলেন তিনি। 
 
ছবিতে দেখা যাচ্ছে, কনের বেশে বন্ধুদের মাঝে মধ্যমণি হয়ে বসে রয়েছেন নুসরত। তাঁর চোখে মুখে খুশির দীপ্তি। ক্যাপশনে লিখেছেন, প্রত্যেক মেয়ে তাঁর সবচেয়ে বিশেষ দিনে এভাবেই লাল পোশাকে সাজার স্বপ্ন দেখেন। আমি তাঁদের ধন্যবাদ জানাতে চাই, যাঁরা আমার পাশে ছিলেন এবং আমাকে ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছেন। 

 

 

প্রসঙ্গত, বিয়ে করেই একমাথা সিঁদুর নিয়ে ক্যামেরার সামনে এসেছেন তিনি। ধর্মে নানা নিয়ম কানুনে নিজেকে আটকে না রেখে নুসরত সিঁদুরের সঙ্গে হাতে চূড়া পরে সংসদে এসেও শপথ গ্রহণ করেছেন। এর পরেই বহু সমালোচনার মুখে পড়তে হয় নুসরত জাহানকে। প্রশ্ন ওঠে, মুসলিম ধর্মের হয়েও কেন সিঁদুর পরছেন! তাহলে কি তিনি হিন্দু হয়ে গেলেন? 

সম্প্রতি এই বিষয়ে এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন নুসরত জাহান। তিনি বলেছেন, অনেকেই জিজ্ঞাসা করছেন আমি কি বিয়ে করে হিন্দু হয়ে গিয়েছি? আমার মনে হয়, কোন ধর্ম অনুসরণ করব সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার সকলের রয়েছে। আমি জন্মসূত্রে ইসলাম ধর্মের আর সেটাই অনুসরণ করছি। কিন্তু সব ধর্ম এবং তার নিয়মের প্রতি শ্রদ্ধাও রয়েছে আমার। আমি ও নিখিল দুজনেই আমাদের ধর্ম পালন করছি। এটাই তো স্বাভাবিক আমার মনে হয়।

তুরষ্কের বিয়ে পর্ব সেরে এসেই দিল্লিতে গিয়ে শপথ গ্রহণ করেছেন নুসরত। এর মাঝে বসিরহাট যাবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। আগামী ৪ জুলাই কলকাতায় গ্র্যান্ড রিসেপশনের আয়োজনের ব্যবস্থা করেছেন নুসরত ও নিখিল। এদিন টলিউডের তারকারা উপস্থিত থাকবেন।