সুখবর মিলে ছিল মাত্র বারো দিন আগে। নিয়ম মেনেই পামেলা অ্যান্ডারসন বিয়ে করেছিলেন জন পিটার্সকে। নব্বইয়ের দশ থেকে সকলের মনে ঝড় তোলা এই মডেলের বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসতেই তা ছড়িয়ে পড়েছিল রাতারাতি। পামেলা অ্যান্ডারসনের ভক্তের সংখ্যা বিস্তর। তাঁকে বিয়ে করার স্বপ্নও দেখে ছিলেন বহু ভক্ত। কিন্তু কাউ কেই পছন্দের তালিকাতে রাখেননি তিনি। 

আরও পড়ুনঃ দিল্লির দূষণে অসুস্থ ঋষি কাপুর, পরিবার সূত্রে ফাঁস স্বাস্থ্যের বর্তমান খবর

অতীতের চার চারটি বিয়ে। টেকেনি একটাও। এরপরই পামেলা বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন জন পিটার্সকে দেখার পর। জন পিটার্সও নাকি পামেলার অপেক্ষাতেই দিন গুণছিলেন। তাঁকে ভোলা সম্ভব হচ্চিল না। প্রকাশ্যেই এমন মন্তব্য করেছিলেন তিনি। সেই কথা মতই তাঁরা বিয়ের পিঁড়িতে বসেন। নেটদুনিয়ায় খবর ছড়ায় অবশেষে ঘর বাঁধলেন পামেলা। কিন্তু কে জানত, এই বিয়ে ১২ দিনও স্থায়ী হবে না। 

বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসার পরই যে উৎসাহ ছড়িয়ে ছিল সকলের মধ্যে তা ভাঙতে সময় নিল না বেশি। পাঁচ দিনের মাথায়ই তাঁরা বিবাহ বিচ্ছেদের সিদ্দান্ত নিলেন। পামেলা এক বিদেশি সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছেন, নিয়ম মেনেই বিয়ে, নিয়ম মেনেই বিচ্ছেদের পথে হাঁটবেন তাঁরা। তবে কী আবার ষষ্ঠ বিয়ের পথে হাঁটবেন পামেলা, তা এখন রহস্যই রয়ে গেল। শরীরী ভাঁজে ঝড় তুললেও সংসার জীবনে যে তিনি বাজিমাত করতে পারছেন না, তার আঁচ খানিকটা মিলল এবার ভক্তদের।