আর অভিনয় দুনিয়ায় থাকবেন না। জানিয়ে দিয়েছেন কাশ্মীরি কন্যা জাইরা ওয়াসিম। তিনি জানিয়েছেন, অভিনয় জগতে তাঁকে দেখতে সুন্দর লাগলেও, এ জায়গা তাঁর জন্য নয়। অভিনয় জগতে থাকলে তাঁর ঈশ্বরের প্রতি বিশ্বাসে ব্যাঘাত ঘটছে। 

জাইরার এই সিদ্ধান্তের নিন্দা করেছেন অনেকেই। রবিনা ট্যান্ডন টুইট করে বলেছিলেন, দুটো ছবি করে অকৃতজ্ঞের মত এই চলচ্চিত্র জগত থেকে বেরিয়ে গেলে খুব একটা কিছু এসে যায় না। কিন্তু তারা ভালোভাবে এই ইন্ডাস্ট্রি থেকে বেরিয়ে যাবেন এবং এই ধরনের মন্তব্য নিজেদের কাছেই রাখবেন এটুকুই কাম্য। 

কিন্তু এখন প্রশ্ন উঠছে সোশ্য়াল মিডিয়ায় কি স্বেচ্ছায় ওই পোস্ট করেছেন জাইরা ওয়াসিম। বেশ কিছু সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে এই নিয়েই নতুন তথ্য উঠে আসছে। বলা হচ্ছে, রীতিমতো জোর করে ওই পোস্ট লেখানো হয়েছে জাইরাকে দিয়ে। তাঁকে ধর্মের জন্য অভিনয় ছাড়তে বাধ্য করা হয়েছে। এই খবর সামনে আসতেই আজ মঙ্গলবার আবার জাইরার কাছে ক্ষমা চাইলেন রবিনা। 

 

 

রবিনা লিখেছেন, যদি সত্যি চাপ সৃষ্টি করে তাঁকে অভিনয় ছাড়তে বাধ্য করা হয় তা হলে আমার সত্যিই খুব খারাপ লাগছে। ওকে কি ভয় দেখিয়ে ওই লম্বা পোস্ট লেখানো হয়েছে! ও এই প্রজন্মের ছেলে মেয়েদের কাছে অনুপ্রেরণা ছিল। 

আরও একটি টুইট করে রবিনা লেখেন, আমি ওর জন্য প্রার্থনা করছি, ও যেন শক্ত থাকে। আমার সেদিনের টুইটের জন্য আমি অনুশোচনা করছি। হয়তো ওকে জোর করে এটা লেখানো হয়েছে। আমি ওই টুইটটি ডিলিট করছি। 

প্রসঙ্গত, এমন প্রশ্নও ওঠে যে জাইরার অ্যাকাউন্ট কেউ হ্যাক করেছেন। সেই প্রশ্নেরও জবাব দিয়েছেন জাইরা। একটি পোস্ট করে জানিয়েছেন, 'আমার কোনও সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টই হ্যাক করা হয়নি। প্রত্যেকটি অ্যাকাউন্ট আমি নিজেই হ্যান্ডেল করি। দয়া করে আমার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে এমন ভুল খবর ছড়াবেন না। ধন্যবাদ।'