দিনের পর দিন ভারী বর্ষণে নাজেহাল দশা মুম্বইয়ে। জায়গায় জায়গায় জল জমে থইথই অবস্থা। এই চরম প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে মানুষ তার মানবিকতার পরিচয় দেবে এমনটাই আশা করা হয়। কিন্তু তার ঠিক উল্টো চিত্র ধরা পড়ল মুম্বইয়ের ওরলিতে। যা নিয়ে প্রতিবাদে সোচ্চার হলেন বলি অভিনেত্রী সোমন কাপুর। তাঁর সুরে সুর মেলালেন টলিউডের মিমি চক্রবর্তীও। 

 

ঘটনাটি ঘটেছে গত ২৪ জুলাই। গোটা সপ্তাহ জুড়েই মুম্বইয়ে ভারী বৃষ্টি হয়েছে। তার মধ্যে আর কোথাও জায়গা না পেয়ে, রাস্তার একটি কুকুর আশ্রয় নিয়েছিল ওরলির এক বহুতলের নীচে। অভিযোগ এরপরই ওই বহুতলের এক বাসিন্দা নিরাপত্তারক্ষীদের নির্দেশ দেন কুকুরটিকে এমন মার মারতে, যাতে আর কোনও প্রাণী ওই বাড়িতে ঢোকার সাহস না পায়। এরপরই কর্তব্যরত নিরাপত্তারক্ষীরা কুকুরটিকে মারতে মারতে  আধমরা করে ফেলে। বহুতলের সামনেই বৃষ্টির মধ্যে যন্ত্রনায় কাতড়াতে থাকা কুকুরটিকে ফেলে তারা চলে যায়। সেখানে পড়ে থাকতে থাকতেই কুকুরটি কোমায় চলে যায়।


  
পুরো ঘটনাটাই ওই বহুতলের সিসি ক্যামেরায় রেকর্ড হয়। সেই ভিডিও থেকেই বিষয়টি জানাজানি হয়ে যায়। বলিউড অভিনেত্রী ও পশুপ্রেমী  সোনম কাপুর সোশ্যাল মিডিয়ায় পুরো ঘটনাটার বিবরণ দিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তাঁর পোস্ট থেকেই জানা গিয়েছে, এই নক্কারজনক ঘটনার খবর পৌঁছেছে মুম্বইয়ের অ্যানিম্যাল রাইটস সংগঠনগুলির কানেও। তারা ওরলি পুলিশ স্টেশনে একটি এফআইআরও দায়ের করেছে। তিনি আরও জানিয়েছেন, কুকুরটি এখন আর কারোর ডাকে সাড়া দিচ্ছে না। তবে ঘটনার ভিডিও এবং অন্যান্য প্রমাণ তুলে দেওয়া হয়েছে পুলিশের হাতে। কাজেই দোষীরা শাস্তি পাবে এমনটাই আশা করা হচ্ছে। 

 

শুধু সোনম কাপুর-ই নন এই অন্যায়ের প্রতিবাদে সামিল হয়েছেন, অনুষ্কা শর্মা, আলিয়া ভাট-এর মতো বলিউডের একাধীক পশুপ্রেমী অভিনেতা-অভিনেত্রীও। বলিউড ছাপিয়ে প্রতিবাদ উঠে এসেছে টালিগঞ্জ পাড়া থেকেও। অভিনেত্রী তথা সাংসদ মিমি চক্রবর্তী সোনমের পোস্টের কমেন্ট সেকশনে দোষীদের কড়া শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।