বছরের শুরুতেই বাজিমাত করলেন কাজল-অজয় দেবগণ জুটি। নিজেক অভিনয় জগতের ত্রিশ বছরে এসে নিজের সেরাটা দর্শকদের সামনে যে অজয় দেবগণ তুলেধরতে পেরেছেন, তারই প্রতিফলন দেখা গেল এবার বক্স অফিসে। একের পর এক ছবি হিট ছিল তাঁর। তবে মাঝের বেশ কয়েকবছর দর্শকেরা সেভাবে পাননি অজয় দেবগণকে। এরপরই ঘরানা বদল। 

আরও পড়ুনঃ কঙ্গনার ঝুলিতে পদ্মভূষণ, তালিকাতে বলিউডে আর কোন কোন তারকা

কখনও হাসির ছবি, কখনও আবার সিংঘম, বিভিন্ন ধারার চিত্রনাট্যেই তিনি সাবলীল। তবে তানাজি-র মত চিত্রনাট্যে অভিনেতা এর আগে ছবি করেননি। ফলে ছবির প্রথম লুক দেখার পর অনেকেই প্রশ্ন তুলেছিলেন, বক্স অফিসে তা কতটা প্রভাব ফেলবে। সঙ্গে ছিল আনুসাঙ্গিক কারণ। একই সময় একের পর এক পেশওয়া, মারাঠি যোদ্ধাদের নিয়ে ছবি তৈরি হচ্ছে। সেভাবে জায়গ করতে পারেনি পানিপথ। তবে কি মুখ থুবরে পড়বে তানাজি!

অবশেষে তার মুখ্য জবাব দিলেন অজয় দেবগণ। প্রমাণ করে দিলেন যে তিনি যে কোনও চরিত্রেই নিজেকে ভেঙে গড়তে সক্ষম। শুরুটা ছিল বেশ। সামনে প্রতিদ্বন্দীতায় ছিল ছপাক। সেখানে থেকেই বাজিমাত করলেন অজয় দেবগণ। মুক্তির তিন সপ্তাহে এসে তানাজি ছবি জায়গা করেনি ২০০ কোটির ক্লাবে। উত্তরপ্রদেশে এই ছবিকে করমুক্তও করে দেওয়া হয়েছিল। ফলে ১০০ তম ছবিতে বর্তমানে ডবল সেঞ্চুরি করেও নট আউট অজয়।