অবশেষে সব প্রতীক্ষার অবসান। নতুন ইতিহাস লিখল কলকাতা ফুটবলের ঐতিহাসিক ডার্বি। আইএসএলের ইতিহাসে প্রথমবার মুখোমুখি হল চির প্রতীদ্বন্দ্বী দুই দল এসসি ইস্টবেঙ্গল ও এটিকে মোহনবাগান। ভারতীয় সময় সন্ধ্যে ৭টা ৩০ মিনিট থেকে শুরু হয় খেলা। ডার্বি ঘিরে বেশ কয়েক দিন ধরেই  দুই দলের সমর্থকদের মধ্যে চড়ছিল উন্মাদনা ও উত্তেজনার পারদ। খেলার শুরু সেই উত্তেজনা দেখা গেল অ্যান্টেনিও লোপেজ হাবাস ও রবি ফাউলারের দলের মধ্যে।

এদিন বরাবরের মতই ডার্বির উত্তেজনা নিয়ে শুরু হয় খেলা। দুই দলের কোচ প্রথম দিকে একটু প্রতিপক্ষকে মেপে নেন। তবে ম্যাচের প্রথম থেকে লড়াইয়ের কোনও খামতি ছিল না। প্রথমার্ধে দুই দলই বেশ কিছু সুযোগ তৈরি করে। কিন্তু গোলের মুখ খুলতে ব্যর্থ হয় দুই দল। তবে প্রথমার্ধে দুই দলই একটু রক্ষণাত্বক ভঙ্গিতে খেলে। রক্ষণ সামলে আক্রমণে যাওয়ার চেষ্টা করে এসসি ইস্টবেঙ্গল ও এটিকে মোহনবাগান। তবে এটিকে মোহনবাগান দুবার গোলের সম্ভাবনা তৈরি করলেও লাল-হলুদের গোলরক্ষক দেবজিৎ মজুমদার অনবদ্য সেভ করেন। ফলে প্রথমার্ধের শেষে গোলশূন্য ব্যবধানেই শেষ হয় খেলা। 

প্রথমার্ধে গোল না হলেওস বল পজিশনে কিন্তু হাবাসের দলকে টেক্কা দিয়ে গেল রবি ফাউলারের দল। প্রথমার্ধে এসসি ইস্টবেঙ্গলের বল পজিশন ছিল ৬৫ শতাংশ ও এটিকে মোহনবাগানের বল পজিশন ৩৫ শতাংশ। শট নেওয়ার দিক থেকে ৬-৫ ব্যবধানে এগিয়ে লাল-হলুদ শিবির। তবে বিপভের গোলরক্ষককে বেশি সমস্যায় ফেলেছে সবুজ মেরুণ শিবির। প্রথমার্ধে দুই গলই একটি করে হলুদ কার্ড দেখতে হয়েছে। দ্বিতীয়ার্ধে গোল দেখার অপেক্ষায় সমর্থকরা।