এই বছরের বুন্দেশলিগার সবচেয়ে বড় এবং গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটি খেলতে মঙ্গলবার মাঠে নামবে এই মুহুর্তে জার্মান ফুটবলের সেরা দুই দল বুরুশিয়া ডর্টমুন্ড এবং বায়ার্ন মিউনিখ। তাদের দ্বৈরথ ফুটবল জগতে ডার ক্লাসিকার নামে পরিচিত। এর মধ্যেই ২০১৯-২০ মরশুমে দুই বার মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। কিন্তু মঙ্গলবারের ম্যাচটি হতে চলেছে এই বছরের বুন্দেশলিগা খেতাবের দৌড়ে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। এই ম্যাচে বায়ার্ন জিতলে তারা খেতাবি দৌড়ে বাকিদের থেকে অনেকটাই এগিয়ে যাবে। কিন্তু এর্লিং হাল্যান্ডরা জিতলে লিগের লড়াই আরও জমজমাট হবে। এর আগে মরশুমের শুরুতে জার্মান সুপার কাপের ম্যাচে বায়ার্ন কে ২-০ ফলে হারিয়েছিল ডর্টমুন্ড। কিন্তু লিগের খেলায় নিজেদের ঘরের মাঠে আলিয়ানজ এরিনায় ডর্টমুন্ড ৪-০ গোলে দুরমুশ করেছিল বাভারিয়ান নেকড়েরা। 

আরও পড়ুনঃঘূর্ণিঝড় আমফানের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড যুবভারতী স্টেডিয়াম,অল্পের উপর রক্ষা পেল ইডেন গার্ডেন্স

ফাঁকা সিগন্যাল ইঁদুইনা পার্কে যখন ডর্টমুন্ডের বিরুদ্ধে মাঠে নামবে বায়ার্ন তখন তারা ৬১ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকার শীর্ষে থাকবে। সমসংখ্যক ম্যাচ খেলে ৫৭ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ডর্টমুন্ড। ফুটবল পুনরায় শুরু হওয়ার পর শেষ দুই ম্যাচ মিলিয়ে ৭ গোল করেছে বায়ার্ন মিউনিখ। দুই ম্যাচ মিলিয়ে মাত্র দুটি গোল হজম করেছে তারা। অপরদিকে ডর্টমুন্ড দুই ম্যাচ মিলিয়ে গোল করেছে ৬ টি, এই দুই ম্যাচে তাদের একটিও গোল হজম করতে হয়নি। কাজেই দুই দলকেই আক্রমণ এবং রক্ষণ দুইদিকেই সাবলীল দেখিয়েছে। 

আরও পড়ুনঃকরোনার পর ক্রিকেট ফেরাতে আইসিসির নয়া গাইডলাইন,জেনে নিন গুরুত্বপূর্ণ নিয়মগুলি

আরও পড়ুনঃস্পেন ও ইতালিকে সাহায্যের জন্য সলিডারিটি কাপ খেলবে ইউরোপের তিন শক্তিধর ক্লাব

শেষ ম্যাচ গুলিতে বায়ার্ন মিউনিখ চোটের জন্য পায়নি ব্রাজিলিয়ান তারকা ফিলিপ কুটিনহ-কে। গোড়ালির চোটে ভুগছেন তিনি। এছাড়া কোরেন্টিন টোলিসো এবং নিকোলাস সুলে-কেও পায়নি তারা। একইভাবে বুরুশিয়া ডর্টমুন্ডও তাদের তারকা ফুটবলার মার্কো রয়েস-কে ছাড়াই মাঠে নামছে। চোটের জন্য বাইরে বেলজিয়ান তারকা আক্সেল উইটসেল। গত ম্যাচে চোট পাওয়ায় দলের প্রধান ডিফেন্ডার ম্যাটস হুমেলস-কে নিয়েও অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে ডর্টমুন্ড শিবিরে। দেরি করে অনুশীলনে যোগ দেওয়ায় প্রথম একাদশে জায়গা পাচ্ছেননা তারকা তরুণ ফুটবলার জেডন স্যানচো। শেষ দুই ম্যাচে তাকে ব্যবহার করা হয়েছে পরিবর্ত ফুটবলার হিসাবে। শেষ ম্যাচে উলফসবার্গের পরিবর্ত হিসাবে নেমে একটি গোল করতে সহায়তাও করেছেন তিনি।